আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
রাশিয়াতে প্রশান্ত মহাসাগরের আভাচা উপসাগরে বড় প্রাকৃতিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই সমুদ্র তীরবর্তী উপকূলে ধেয়ে আসছে হাজারো সামুদ্রিক প্রাণীর মৃতদেহ। অবস্থা এমন যে আশঙ্কা করা হচ্ছে আভাচা উপসাগরের ৯৫ শতাংশ প্রাণীর মৃত্যু হয়েছে।

এই বিপর্যয়কে রাশিয়ার সামুদ্রিক ইতিহাসের এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ট্রাজেডি হিসেবে গণ্য করা হচ্ছে। কিন্তু কেন এত পরিমাণে সামুদ্রিক প্রাণী মারা যাচ্ছে, তার কোনো হদিশ পাওয়া যায়নি।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, সমুদ্র সৈকতে ভেসে এসেছে অক্টোপাস, সীল, কাঁকড়া, মাছ সহ অনেক প্রাণীর মৃতদেহ। এইসব ছবি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। বীভৎসতা দেখে আঁতকে উঠেছেন প্রকৃতিপ্রেমীরা। তারা দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি তুলেছেন।

দ্য মস্কো টাইমসের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, বিজ্ঞানীরা সামুদ্রিক জীবের মৃত্যুর জন্য দূষণকে দায়ী করেছেন। আবার কিছু বিজ্ঞানীরা সমুদ্রের অভ্যন্তরে আগ্নেয়গিরির বিস্ফোরণের সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেননি। তবে ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্তের জন্য একটি বিশেষ কমিশন গঠন করা হয়েছে।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, এই বিপর্যয়ের জেরে শুধু মানুষ না কিছু মানুষের জীবনযাত্রা ওপরেও প্রভাব পড়েছে। স্থানীয় মৎস্যজীবী ও সার্ফাররা জানিয়েছেন, পানিতে রয়েছে কীটনাশকের গন্ধ। একই সঙ্গে সার্ফিং করা কিছু লোক বমি বমি ভাব, গলায় ব্যথা এবং চোখে জ্বালার কথাও জানিয়েছেন।

সেখানকার পানি পরীক্ষার পর পেট্রোলিয়াম জাতীয় পদার্থ থাকার প্রমাণ মিলেছে। স্থানীয়রা জানাচ্ছেন, বিগত কয়েকদিন ধরেই সৈকতে ভেসে আসছে মরা সীল, অক্টোপাস এবং সমুদ্রের মাছ। এমন ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি বলে জানান তারা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •