এ কে এম ইকবাল ফারুক, চকরিয়া:
চকরিয়া উপজেলার কৈয়ারবিলের হাফেজ রুহুল আমিনের প্রথম স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) দুপুরে স্থানীয় মখজনুল উলুম মাদ্রাসা মাঠে সভার আয়োজন করে হাফেজ রুহুল আমিন ছাত্র পরিষদ।

এর আগে সকাল ১০টায় মাদ্রাসা মিলনায়তনে খতমে কোরআনের আয়োজন করা হয়। দুপুরে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় অধিবেশন অনুসারে সভাপতিত্ব করেন বরইতলী ফয়জুল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক হাফেজ মাওলানা সোহাইব নোমানী ও কৈয়ারবিল মখজনুল উলুমমাদ্রাসার সাবেক পরিচালক মাওলানা আমিনুর রশিদ।

স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন হাটহাজরি মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার প্রধান পরিচালক মাওলানা শেখ আহামদ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কোরালখালী জিন্নুরাইন মাদ্রাসার পরিচালক মৌলানা আব্দুর রহমান,চিরিংগা মাদ্রাসার মোহতামিম মাওলানা সরওয়ার আলম কুতুবী ও হাটহাজারি বড়দিঘীর পাড় আলমাকাজুল ইসলাম মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা রুহুল কাদের প্রমুখ।

আরও বক্তব্য রাখেন, মাওলানা গোলাম মোস্তফা, মাওলানা শহিদুল ইসলাম, মাওলানা আহামদ কবির হাফেজ মো. দেলোয়ার হোসাইন ও ক্বারী বদিউল আলম প্রমুখ।

প্রসঙ্গত: ২০১৯ সালের ৫ অক্টোবর জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে কৈয়ারবিল ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামে দিনদুপুরে প্রতিপক্ষের হাতে নির্মমভাবে নিহত হন রুহুল আমিন। দুর্বৃত্তরা তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। এসময় নিহতের বড়ভাই মাওলানা আমিনুর রশিদকেও দুর্বৃত্তরা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে আহত করে।
হাফেজ রুহুল আমিন উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম কৈয়ারবিল নয়াপাড়া গ্রামের মৃত মাওলানা আমিন উল্লাহর ছেলে ও স্থানীয় কৈয়ারবিল মখজনুল উলুম মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ছিলেন।
দাম্পত্য জীবনে তার ৪ পুত্র ও ৪ কন্যা সন্তান রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •