নিজস্ব প্রতিবেদক :
জেলা প্রশাসনের আশ্বাসে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নিয়েছে এলপিজি ব্যবসায়ীরা। এতে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন ভোক্তা সাধারণ।
জেলা এলপিজি ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি সরওয়ার কামাল সিকদার ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম আরিফ লিটন বলেন, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর পরিষদ কক্সবাজার কার্যালয়ের অহেতুক হয়রানী করার প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট পালনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সিদ্ধান্ত মোতাবেক বুধবার (৭ অক্টোবর) থেকে কক্সবাজারের সকল গ্যাসের দোকান বন্ধ রাখা হয়। বৃহস্পতিবার (০৮ অক্টোবর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে জেলা এলপিজি ব্যবসায়ীরা অবস্থান কর্মসূচীও পালন করে। সন্ধ্যায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. শাজাহান আলী আশ্বস্ত করেছেন যে, বিষয়টি সন্তোষজনক সমাধান করে দেবেন। এ জন্য আগামী রবিবার (১১ অক্টোবর) জেলা এলপিজি ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠক করার কথা রয়েছে। বৈঠকে বিষয়টি সমাধান না হলে আমরাও পুনরায় কর্মসূচী দিব।
এর আগে এলপিজি ব্যবসায়ীরা হয়রানীর অভিযোগ এনে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়। ধর্মঘটের ফলে শহরে সব গ্যাসের দোকান বন্ধ রয়েছে। অনেকের বাড়ির গ্যাস ফুরিয়ে গেলে দোকান বন্ধ থাকার কারণে বিপাকে পড়তে হয়। গ্যাস কিনতে না পেরে ভিন্ন জ্বালানি দিয়ে রান্নাবান্না করতে হয়। তাই গ্রাহকদের ভোগান্তি কমাতে ওই সিদ্ধান্ত নেয় কক্সবাজার জেলা প্রশাসন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •