জে.জাহেদ, চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রাম কর্ণফুলীর সৈন্যেরটেকের ‘গোল্ডেন সন লিমিটেড’ ফ্যাক্টরীতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছে কয়েকজন শ্রমিক। আগুনে প্রায় ৫০ কোটি টাকারও বেশি পণ্য পুড়ে গেছে বলে দাবি করেছে সৈন্যেরটেকে অবস্থিত কারখানা কর্তৃপক্ষ।

রবিবার (৪ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে ফ্যাক্টরীর ৫ম তলায় এই আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। কারখানার শ্রমিক ও কর্তৃপক্ষ আগুন নেভাতে ব্যর্থ হয়ে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। তাৎক্ষনিক খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিট চেষ্টা চালালেও আগুন নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হন।

জানা যায়, অগ্নিকাণ্ডের সময় ৬/৭ জন শ্রমিক আটকে পড়লেও পরে নিরাপদে বের হয়ে আসেন। এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। তবে কর্তৃপক্ষ জানায়, আগুনে গুদামটি পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আগুনের কারণ অনুসন্ধানে কাজ করছে কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ ও কারখানার শ্রমিক-কর্তৃপক্ষ এবং এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সাড়ে ৬টার দিকে পলি কারখানার ৫ম তলা ভবনের গুদামে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যে পুরোটা ফ্লোরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

সেকশনটির সুপারভাইজার মো. ইসমাইল হোসেন জানান, ঘটনার সময় ঐ সেকশনে ১১/১২ জন শ্রমিক কাজ করেছিলেন। পরে তাদের নিরাপদে উদ্ধার করে কারখানার নিরাপত্তাকর্মীরা। যেখানে আগুন লাগে ওখানে কোটি কোটি টাকার গার্মেন্টস পণ্যের ক্ষতি হতে পারে ধারণা করছি।’

তিনি জানান, প্রথমে শহরের রাজাখালী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স। পরে পটিয়া ও আগ্রাবাদের ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর কাজ করেও সফল হতে পারেনি। তবে পলির গুদামে আগুন লাগায় নিয়ন্ত্রণ আনতে বেগ পেতে হয়। প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা করে রাত ৯টার দিকে কিছুটা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়।

ফায়ার সার্ভিসের কয়েকজন কর্মী জানান, কারখানায় এ্যামারজেন্সী সিঁড়ি না থাকায় তাদের কাজ করতে অসুবিধা হয়।

গোল্ডেন সন ফ্যাক্টরীর স্টেট অফিসার ওমর হায়দার বলেন, অগ্নিকান্ডে মানুষজনের কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে আনুমানিক শত কোটি টাকার ক্ষতি হতে পারে বলে ধারণা করছি।’

গোল্ডেন সন লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. বেলাল আহমেদ জানান, ‘এখনো পুরোপুরি আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি। তবে ফায়ার সার্ভিস চেষ্টা চালাচ্ছেন। ক্ষয়ক্ষতি পরে জানা যাবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •