রোহিঙ্গা ক্যাম্প- ফাইল ছবি

ইমরুল কায়েস :

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর সংঘর্ষে ২ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে অন্তত ৩০ রোহিঙ্গা। কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শনিবার রাতভর দুই সন্ত্রাসী বাহিনীর দফায় দফায় সংঘর্ষে এই ঘটনা ঘটে।

রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ইয়াবা পাচার, চাঁদাবাজি, অপহরণ নিয়ে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী মাস্টার মুন্না বাহিনীর সাথে বেলাল-আসাদ  বাহিনীর দীর্ঘদিন ধরে সংঘর্ষ চলে আসছিলো। শনিরাব রাতে উভয় গ্রুপের ৪ শতাধিক সন্ত্রাসী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। রাতভর উভয় গ্রুপের মাঝে থেমে থেমে গোলাগুলি হয়। ভারি অস্ত্রের পাশাপাশি দেশিয় অস্ত্র নিয়েও উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ ও দায়ের কোপে ২ জন নিহত ও অন্তত ৩০ জন আহত হয়।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা আমর্ড পুলিশ ব্যাটলিয়ন এপিবিন সুত্রে ২ জন নিহত হওয়ার ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে স্থানীয় মুন্না গ্রুপ ও আনাস গ্রুপের মধ্যে আভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব নিয়ে বিক্ষিপ্তভাবে একের পর এক সংঘর্ষ চলে আসছিল।

এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার ভোররাতে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এতে দুইজন নিহত হয়। এর আগে ৩০ সেপ্টেম্বর একইভাবে সংঘর্ষে ১৫ জনেরও বেশি রোহিঙ্গা আহত হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •