রাসেদুল ইসলাম মাহমুদ :

কক্সবাজার জেলায় কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে৷

শনিবার (৩ অক্টোবর), কক্সবাজার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শহিদ এটিএম জাফর আলম সিএসপি সম্মেলন কক্ষে সিনিয়র সচিব, স্থানীয় সরকার বিভাগ ও কক্সবাজার জেলা কোভিড-১৯ প্রতিরোধ কার্যক্রম প্রতিরোধ কমিটির সমন্বয়ক, হেলালুদ্দীন আহমদ এর সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সিনিয়র সচিব বলেন, কোভিড-১৯ এর সেকেন্ড ওয়েভ প্রতিরোধে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ, যতদিন পর্যন্ত টিকা না আসছে আবশ্যিকভাবে সকলের মাস্ক পরিধান নিশ্চিতকরণ, যারা মাস্ক পরিধান করবে না তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা, সর্বদা হাত পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত করণে জনসচেতনতা সৃষ্টি, জনসমাগম করে অনুষ্ঠান আয়োজন নিষিদ্ধ করা, ধনাঢ্য ব্যক্তিদের বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করতে উৎসাহ প্রদান করা, বৃদ্ধ ও অসুস্থ ব্যক্তির ঘরে থাকা নিশ্চিত করা, জেলায় তরুণ-তরুণীদের নার্সিং পেশায় আসতে উদ্বুদ্ধকরণ, কক্সবাজারের হাসপাতাল সমূহে জনবল সংকট নিরসনে উদ্যোগ গ্রহণ, মেডিকেল বর্জ্য অপসারণের লক্ষ্যে ইনসিনারেটর স্থাপন, নো মাস্ক নো সার্ভিস – সামাজিক আন্দোলন জোরদার করাসহ বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভা শেষে উপজেলা পর্যায়ে উন্নত স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে প্রয়োজন অনুযায়ী মহেশখালী ও রামু উপজেলায় হাই ফ্লো নজল ক্যানুলা এবং পেকুয়া, কুতুবদিয়া, মহেশখালী উপজেলায় অক্সিজেন কন্সেন্ট্রেটর প্রদান করা হয়।

এ সময় অন্যন্যদের মধ্যে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, কক্সবাজার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক শ্রাবস্তী রায়, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলা অাওয়ামীলীগের সভাপতি, সংসদ সদস্যবৃন্ধ, জেলা অাওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, উপজলা নির্বাহী অফিসারগণ, সেনাবাহিনীর প্রতিনিধি, নৌবাহিনীর প্রতিনিধি, অধ্যক্ষ,কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, সিভিল সার্জ এর প্রতিনিধি, দায়িত্বপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক সদর হাসপাতাল, পৌরসভার মেয়রবৃন্ধ,উপজেল পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ, নির্বাহী প্রকৌশলী, পৌর আয়ামীলীগের সভাপতি, ডিপিএইচই ও এলজিইডি, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক, এবং সভাপতি, প্রেসক্লাব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •