শাহেদুল ইসলাম মনির, কুতুবদিয়া :

সরকারি নির্দেশনায় সারা দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় চালু করেছেন অনলাইনে পাঠদান। সরকারিভাবে বিটিভিতে পাঠদান চালু রয়েছে।

তবে সারাদেশের শিক্ষার্থীরা এন্ড্রয়েড মুঠোফোনে ইন্টারনেট সুবিধা নিয়ে ল্যাপটপ ব্যবহার করে অন-লাইন পাঠ সুযোগ গ্রহন করে যাচ্ছে।

এদিকে, কক্সবাজারের দ্বীপ কুতুবদিয়া উপজেলার প্রায় ৯০ শতাংশ হতদ্ররিদ্র শিক্ষার্থীরা এনড্রোয়েড মুঠোফোন, বিদ্যুৎ ও ইন্টারনেট সুবিধা না থাকায় এ সুযোগ থেকে এখানকার ছেলে-মেয়েরা অনলাইন পাঠদান সরকারের “আমার ঘরে আমার স্কুল” কার্যক্রম থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে।

কুতুবদিয়া উপজেলার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজ প্রধানদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, সরকারি নির্দেশনায় থাকলেও শিক্ষার্থীরা এ সুযোগ নিতে পারছে না। তাদের এনড্রোয়েড মুঠোফোন, ল্যাপটপ, এমবি, ব্রডব্যান্ড, ওয়াইফাই ও বিদ্যুতের সুবিধা না থাকায় তারাই সুযোগটি গ্রহন করতে পারছেন না।

উপজেলার সহকারি শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ বলেন, কুতুবদিয়ার ছাত্র-ছাত্রীরা শিক্ষা ক্ষেত্রে মূলধারার ছাত্র-ছাত্রীদের থেকে অনেক পিছিয়ে। টেলিভিশন, স্মার্টফোন-ইন্টারনেট তো নেই এমনকি বিদ্যুৎ সুযোগও নেই। আমিসহ আরও কয়কজন শিক্ষক মিলে চেষ্টা করতেছি অনলাইন পাঠ দেওয়ার জন্য। আশা করি সফল হব।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •