এরফান হোছাইন :

দ্বীপ উপকূলীয় উপজেলা মহেশখালীতে শত্রুতার জের ধরে পানের বরজ নষ্ট করেছে  দুষ্কৃতিকারীরা।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর সম্ভাব্য রাত এগার টায় কে বাঁ কারা পানের ক্ষতিসাধনে সক্ষম একধরনের   বিষ প্রয়োগ করে পান চাষী ফোরকান ও মামুনের প্রায় ৪ লক্ষ টাকার অধিক ক্ষয়ক্ষতি করেছে।

এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনাটি ঘটেছে কালারমারছড়া ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের মাইজপাড়া গ্রামে।

৩০ সেপ্টেম্বর সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দুধরণের ক্ষতিকর প্যারডেক্সান ও সানআপ নামের বিষের ব্যবহৃত ১০০ মিলি ওজনের ৪ টি খালি বোতল পাওয়া যায় যা বনজঙ্গল নষ্টের জন্যে ব্যবহৃত একধরণের রাসায়নিক বিষ নামে পরিচিত।

সূত্রে জানা যায়,মাইজপাড়া গ্রামের দুজন পানচাষী ফোরকান ও মামুন তারা অন্যের জায়গায় প্রায় যথাক্রমে ৫০ ও  ৪০ বার পানের বরজ দেয়।

উভয়ই চাষা এই পানের বরজের জায়গা  জমির দখলে থাকা ফররুখ আহমদ থেকে ফোরকান , শহীদুল্লাহ গং থেকে মামুন প্রতিবছরের ন্যায় চাষাবাদের জন্যে যথাক্রমে খাজনাবাবদ ১ লাখ টাকা ও ৮০ হাজার দিয়ে ভাঁড়া নেয়।

ভুক্তভোগীদের মতে,পানের ক্ষতিসাধনে সক্ষম একধরনের মারাত্মক এসিড মিশ্রিত বিষ প্রয়োগ করে ,যার ফলে অল্পসময়ের মধ্যে তাদের উভয়ের কয়েক লক্ষাধিক টাকার সম্পদ পুরো পানের বরজ নষ্ট হয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানান,  দীর্ঘদিন ধরে উক্ত পানের বরজের ভোগদখল নিয়ে বর্তমান দখলে থাকা ফররুখ আহমদ ও শহীদুল্লাহ গং এর সাথে অন্য পক্ষ আমিনের সাথে বিরোধ রয়েছে।
ঘটনাস্থলে উপস্থিতিসহ ভুক্তভোগীদের ধারণা এই ক্ষতিসাধন বিষয়টি ভোগ দখলকে কেন্দ্র করে এই ঘটনাটি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বরজের মালিক ও স্থানীয়রা এ ধরণের ন্যাক্কারজনক ঘটনার সঠিক তদন্ত ও  অপরাধীদের শাস্তি কামনা করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •