সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :

বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শুভ প্রবারণা পূর্ণিমায় পৌরবাসীসহ জেলার সকল বৌদ্ধ সম্প্রদায়কে মৈত্রীময় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র জননেতা মুজিবুর রহমান।

সংবাদপত্রে প্রেরিত এক শুভেচ্ছা বার্তায় মেয়র মুজিব বলেন, মহামতি গৌতমবুদ্ধ মানুষের কল্যাণ এবং শান্তি প্রতিষ্ঠায় অহিংসা, সাম্য ও মৈত্রীর বাণী প্রচার করেছেন। শান্তি ও সম্প্রীতির মাধ্যমে আদর্শ সমাজ গঠনই ছিলো তাঁর অন্যতম লক্ষ্য।

তাছাড়া বাংলাদেশ যেহেতু সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ, সেহেতু আবহমানকাল থেকে এ দেশে প্রত্যেক ধর্মের মানুষ উৎসবমুখর পরিবেশে নিজ নিজ ধর্ম পালন করে আসছেন। সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির এই বন্ধনকে সমুন্নত রাখতে বৌদ্ধদেরও তাৎপর্যপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তিনি বলেন, শুভ প্রবারণা-শীল, সমাধি, প্রজ্ঞার অনুশীলনের মাধ্যমে আত্মশুদ্ধি, শুভ, সত্য ও সুন্দরকে গ্রহণ বা বরণ করে অসত্য ও অসুন্দরকে বর্জন করে।

এদিকে বৌদ্ধদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শুভ প্রবারণা পূর্ণিমায় কক্সবাজার পৌর এলাকার সকল নাগরিকসহ জেলার সকল মানুষের জীবনে সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি বয়ে আনুক এ কামনা করে শুভ প্রবারণা পুর্ণিমার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মেয়র মুজিবুর রহমান।

প্রসঙ্গত: গৌতম বুদ্ধ বুদ্ধত্ব লাভের পর আষাঢ়ী পূর্ণিমা হতে আশ্বিনী পূর্ণিমা তিথি পর্যন্ত ভিক্ষু সংঘের ত্রৈমাসিক বর্ষাবাস শেষে প্রবারণা উৎসব এবং পরদিন থেকে একমাস বৌদ্ধ বিহারগুলোতে কঠিন চীবর দানোৎসব পালনের রীতি প্রচলন রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •