মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু, নাইক্ষ্যংছড়ি:
পার্বত্যজেলা বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি-চাকঢালা সড়কের বেহাল দশা। সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়মের কারণে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে জনগণ। গাড়ি নিয়ে তো দূরের কথা, খালি পায়ে হাঁটতে গিয়ে পড়তে হচ্ছে মহাবিপত্তিতে। ঘটছে দুর্ঘটনা।
অভিযোগ হলো- সড়কটি নির্মাণ কাজে নিম্নমানের উপকরণ ব্যবহার করা হয়েছে। দেয়া হয়েছে খুব পাতলা বিটুমিন। যে কারণে অল্পসময়েই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। অল্প বৃষ্টিতে পানির উপরে ওঠে গেছে ইট-কংকর।
থানার মোড় থেকে শুরু হওয়া এই রাস্তাটি দশ গজও ভালো নেই। বাকী নেই খানাখন্দ ও গর্ত ছাড়া।
নাইক্ষ্যংছড়ি-চাকঢালা সড়কটিতে বাই সাইকেল, মোটর সাইকেল, অটোরিকসা, টমটম, সিএনজি চালকরা বড় কোন দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে-এমন আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।
বান্দরবান সড়ক ও জনপদ বিভাগ থেকে কাজটি পায় ইউনুছ এন্ড ব্রাদার্স নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। কাজটির দেখভাল করেছেন সাইফুদ্দিন হারুন, আবু হান্নান নামের দুই ব্যক্তি।
২০ লাখ টাকার এই সড়ক উন্নয়নের কাজে অর্ধেকও খরচ হয়েছে কিনা, সন্দিহান এলাকাবাসী।
নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদর ইউনিয়নের প্রাণ কেন্দ্রের সড়কটি দেখলে মনে হয়, যেন অভিভাবকহীন।
যেখানে রয়েছে সরকারি কলেজ, আলিম মাদরাসা, হাই স্কুল, প্রাইমারি স্কুলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।
সড়কটিতে চলতে গিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরের দূর-দূরান্তের কোমলমতি শিক্ষার্থীরাসহ নিত্যদিন হাজার হাজার মানুষ সীমাহীন ভোগান্তির শিকার।
ওয়ার্ক অর্ডার অনুযায়ী কাজ হয়েছে কিনা- তা যাচাই করে ব্যবস্থা নিতে সংশ্লষ্টদের প্রতি অনুরোধ করেছেন নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউপি চেয়ার নুরুল আবছার ইমন।
পাহাড়ি এলাকার গুরুত্বপূর্ণ সকটির সংস্কারের জন্য পার্বত্য বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপির হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এলাকাবাসী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •