আবদুল মজিদ,চকরিয়া:

চকরিয়ায় পূবালী ব্যাংকের প্রাইভেট গাড়ীর ধাক্কায় এক শিশুর ৩টি দাত উপড়ে গেছে। উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা ষ্টেশনে ঘটেছে এ দূর্ঘটনা।

প্রাপ্ত তথ্যে ও অভিযোগে জানাগেছে, সাহারবিল ইউনিয়নের রামপুরে নানার বাড়িতে বেড়াতে যায় চকরিয়া পৌরসভা ৪নং ওয়ার্ডের ভরামুহুরী গ্রামের মো: সেলিম উদ্দিনের পুত্র আদিল আকবর (৬)। শিশুটি গত ২২ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে চিকিৎসা করানোর জন্য স্থানীয় মাইজঘোনা ষ্টেশনস্থ ডা: আবদু রহিমের চেম্বারে নিয়ে যায় শিশুর মামি রেজাউল করিমের স্ত্রী ছখিনা বেগম। ওই সময় পূবালী ব্যাংক লি: কক্সবাজার শাখার বেপরোয়া গতির একটি প্রাইভেট গাড়ী (নোয়াহ) মহেশখালী যাওয়ার পথে মাইজঘোনা ষ্টেশনে পৌছলে শিশু আদিল আকবরকে ধাক্কা দিয়ে দ্রুত দূর্ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। খবর নিয়ে জানতে পারেন ওই গাড়ীর চালক ছিল স্বাধীন কুমার চাকমা নামে এক ব্যক্তি। ওই সময় শিশুর ৩টি কাঁচা দাত উপড়ে যায়। তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চকরিয়া জমজম হাসপাতালে ভর্তি করেন। সেখানে ৩দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর সম্প্র্রতি বাড়ি ফিরেন এবং চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা অব্যাহত রাখেন।

শিশুর পরিবারের অভিযোগ; পূবালী ব্যাংকের সংশ্লিষ্টদের সাথে একাধিক যোগাযোগ করার পরও শিশুর চিকিৎসায় কোন ধরণের সহায়তা করা হয়নি। শিশুর চিকিৎসায় অন্তত ১৫-২০হাজার টাকা খরচ হয়েছে। এনিয়ে শিশুর পরিবার পূবালী ব্যাংক লি: এর মহাপরিচালক (মানবসম্পদ বিভাগ)সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।##

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •