ফারুক আহমদ, উখিয়া :

উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের পাটুয়ারটেক জামে মসজিদ ও কবরস্থানের জমি জবর দখলের ঘটনায় গ্রামবাসীদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সহ ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
এ ব্যাপারে মসজিদ ও কবর স্থান পরিচালনা কমিটি এবং স্থানীয় এলাকাবাসী সহ মুসল্লিগণ যৌথ ভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী কমিশনার( ভূমি) কে লিখিত অভিযোগ দায়ের করছে বলে জানা গেছে।

উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা বরাবরে লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, পাঠুয়ারটেক জামে মসজিদ ও কবরস্থানটি অতি প্রাচীনতম ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। বিএস খতিয়ান নম্বর ৬৮০, ৬৬৯ ও ০১ বিএস দাগ নম্বর ৬১৬৫ এর ১ একর ১৫ শতক জায়গার মধ্যে ৬৫ শতক জায়গা বেদখল হয়ে গেছে।
অভিযোগে আরো বলা হয়, একই এলাকার নুর মোহাম্মদ(৫০) পিতা মৃত এরশাদ আলী, জসিম উদ্দিন(৪৫) পিতা সৈয়দ আলম জকির আলম পিতা(৩০) পিতা মৃত সাহাব মিয়া ও নিদানিয়া গ্রামের বদিউল আলম(৫০) পিতা মৃত আবদুল আজিজ গং মসজিদের জায়গা জোরপূর্বক দখল করে তাদের বসতভিরটার জমির সাথে সংযুক্ত করে নিয়েছে।
সচেতন নাগরিক সমাজের অভিমত মসজিদ প্রতিষ্ঠার পর থেকে কবরস্থান ও ঈদ খোলা হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। সরকারী বিএস জরিপের বিরোধীয় দাগের জমির শ্রেণী কবরস্থান, মুসলিমগণের ব্যবহার্য মন্তব্য কলামে মুসলমান সর্বসাধারণের ব্যবহারযোগ্য উল্লেখ আছে।
অভিযোগে প্রকাশ, মসজিদ পরিচালনা কমিটি ও মুসল্লিগণ এবং এলাকার ব্যক্তিবর্গগন উক্ত জমি আদায়ের চেষ্টা করলে দখলকারীরা উল্টো বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা মামলা সহ হুংকার দিচ্ছে।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি জিয়াউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের বলেন, জমি দখল কারীদেরকে আমরা দীর্ঘদিন ধরে মসজিদ ও কবরস্থানের জমি ফিরিয়ে দেওয়ার কথা বলে আসছি কিন্তু তারা আমাদের কথাকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে উল্টো আমাদেরকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করছে। এমতবস্থায় বেদখল হওয়া জায়গা উদ্ধার করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের হস্তেক্ষে পকামনা করছি ।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির অর্থ সম্পাদক মোঃ কাশেম আলী বলেন, আমাদের পাটুয়ারটেক জামে মসজিদ স্থানীয় মানুষের আর্থিক সহযোগিতায় চলে। স্থানীয়রা দখল করে রয়েছেন সেই জমিটুকু যদি মসজিদকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় তাহলে আমরা খুবই স্বচ্ছলতার সাথে মসজিদ পরিচালনা করতে সক্ষম হব। এবং ওই জমিটুকুর মধ্যে আমরা জানাজা এবং ঈদগাহের মাঠ হিসেবেও সেবা ব্যবহার করতে পারব।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সহকারি কমিশনার ভূমিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী বেদখল হওয়া জায়গা উদ্ধার করে মসজিদ ও কবরস্থান কে ফেরত দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •