সিবিএন ডেস্ক :

চিলড্রেন অন দ্যা এইজ এবং মুক্তি কক্সবাজার দরিদ্র, ঝরেপড়া-কর্মজীবি শিশুদের ডিজিটাল ভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য আন্তর্জাতিক পুরস্কার “দ্যা অ্যাবিলিটিনেট টেক ফর গুড এডুকেশন অ্যাওয়্যার্ড-২০২০” অর্জন করেছেন ।

গতকাল (২৪ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায় ব্রিটেনে অনলাইন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। ডিজিটাল শিক্ষা কার্যক্রম উদ্ভাবন, প্রয়োগ ও প্রচারের মাধ্যমে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের শিশুদের সংযুক্ত করার স্বীকৃতি স্বরূপ এই অ্যাওয়ার্ড পায় চিলড্রেন অন দ্যা এইজ এবং মুক্তি কক্সবাজার।

উল্লেখ্য যে, “দ্যা অ্যাবিলিটিনেট টেক ফর গুড এডুকেশন’’ কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট ব্যবহারের মাধ্যমে ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষা প্রদানকারী সংস্থা বা ব্যক্তিকে স্বীকৃতি প্রদান করে।

২০১০ সাল থেকে চিলড্রেন অন দ্যা এইজ এর অর্থায়নে মুক্তি কক্সবাজার, কক্সবাজার জেলায় উপানুষ্টানিক শিক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে দরিদ্র, ঝরেপড়া-কর্মজীবি শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ২০১৮ সালে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এবং চট্টগ্রাম জেলায় এই কার্যক্রম সম্প্রসারিত হয়েছে।

বর্তমানে কক্সবাজার জেলার সদর ও রামু উপজেলায় ০৯টি শিক্ষা কেন্দ্রের মাধ্যমে ৯০০ শিশু, চট্টগ্রাম জেলার সাতকানিয়া ও চন্দনাইশ উপজেলায় ০৫টি শিক্ষা কেন্দ্রের মাধ্যমে ৫০০ শিশু এবং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৭৫টি শিক্ষা কেন্দ্রের মাধ্যমে ৭,৫০০ শিশুকে শিক্ষা প্রদান অব্যাহত আছে।

সর্বমোট ৮৯০০ শিশুকে ৮৯টি শিক্ষা কেন্দ্রে ডিজিটাল পদ্ধতির শিক্ষা “মজা কিডস্” এর মাধ্যমে বিশ্বে চ্যালেঞ্জপূর্ণ পরিবেশে বসবাস করা শিশুদের নিজেদের সৃজনশীল বিকাশ, এক দেশের শিশুদের সর্ম্পকে অন্য দেশের শিশুদের বিভিন্ন বিষয়ে জানা এবং শেখার বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটিয়েছে।

এই স্বীকৃতি পাওয়া প্রসঙ্গে মুক্তি কক্সবাজার এর প্রধান নির্বাহী বিমল চন্দ্র দে সরকার এই অভূতপূর্ব সাফল্যের জন্য দাতা সংস্থা চিলড্রেন অন দ্যা এইজ এর এশিয়া রিজিওন্যাল ম্যানেজার জন লিটলটন, সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, মুক্তি কক্সবাজার কার্যনির্বাহী পরিষদ, মুক্তি ডিজিটাল টিমসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাবৃন্দ এবং শিক্ষার্থীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •