ওসমান আবির :

কক্সবাজারের উখিয়ায় পৃথক অভিযান চালিয়ে ৩৩ হাজার ৮’শ পিচ ইয়াবাসহ দুইজন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‍্যাব-১৫।তারা দুজনই রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের বাসিন্দা।এই তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

উখিয়া উপজেলার বালুখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৩ হাজার ৮’শ পিচ ইয়াবাসহ আতা উল্লাহ নামে (২১) এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে।সে বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই ব্লকের বাসিন্দা আলী আকবরের পুত্র।অপরদিকে কুতুপালং এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার পিচ ইয়াবাসহ কামাল হোসেন নামে (২৪) অপর মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে।সে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা মুসা কলিমের পুত্র।

র‍্যাব সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব জানতে পারে কিছু কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী উখিয়া উপজেলার কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়ের একটু উত্তরে টেকনাফ-কক্সবাজার পাঁকা সড়কের উপড় এবং বালুখালীর ময়নারগোনা মাদ্রাসার দক্ষিণে টেকনাফ-কক্সবাজার পাঁকা সড়কের উপড় ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে।উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-১৫ এর দুটি চৌকশ অভিযানিক দল পৃথক স্থানে মাদক অভিযানের জন্য পৌঁছালে র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে।এমন সময় র‍্যাব সদস্যরা তাদের ধাওয়া করে উপরোক্ত পৃথক স্থান থেকে দুই ব্যক্তিকে আটক করে।পরে আটক ব্যক্তিদের হাতে থাকা দুটি পৃথক শপিং ব্যাগ তল্লাশী করে ৩৩ হাজার ৮’শ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে।যার আনুমানিক মূল্য ১ কোটি ৬৯ লাখ টাকা প্রায়।

এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট মাদক আইনের মামলায় উদ্ধারকৃত মাদকসহ ধৃত মাদক ব্যবসায়ীদের উখিয়া থানায় সোর্পদ করা হয়েছে বলে আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী নিশ্চিত করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •