আবদুল মালেক,রামু :
বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট,যুবসেনা, ছাত্রসেনা রামু উপজেলা কতৃক যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত আহলে সুন্নত ওয়াল জামাতের শীর্ষস্থানীয় আলেমেদ্বীন, বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব জনপ্রিয় ইসলামী আলোচক মুফতি আলাউদ্দিন জিহাদীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে অদ্য ২৩ সেপ্টেম্বর বুধবার বিকাল ৪ ঘটিকার সময় সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ের সামনে কেন্দ্রীয় ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসূচি সভাপতি মোহাম্মদ তৈয়ব উল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

সাধারণ সম্পাদক মাহের ফয়সাল এর সঞ্চালনায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে ছাত্রসেনা কক্সবাজার জেলার সভাপতি ছাত্রনেতা খাজা মোহাম্মদ বাকীবিল্লাহ বলেন- জিহাদী হুজুরের বিরুদ্ধে হেফাজত-কওমী কর্তৃক যেই মামলা করা হয়েছে তা মূলত ভিত্তিহীন। মুফতি আলাউদ্দিন জিহাদী সাহেবের আইডি হ্যাক করে বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট করেছে একদল কুচক্রীমহল। তিনি পোস্টটি মুছে দিয়ে এই অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য দু:খ প্রকাশ ও থানায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরী দাখিল করেন। তারপরও নারায়নগঞ্জ কওমী ওলামা পরিষদের নামে হেফাজত কর্মীরা তাকে প্রাণনাশের হুমকি ও দুরভিসন্ধিমূলক মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, হেফাজতের একাংশের দাবি হলো— মৌ. আহমদ শফির মৃত্যুর পূর্বে যারা হাটহাজারী মাদরাসায় তান্ডব চালিয়েছে, ভাংচুর করেছে, তার মুখ থেকে অক্সিজেন খুলে রেখেছে তারাই হেফাজত প্রধানের খুনী। হেফাজতের বিদ্রোহীরা প্রকাশ্যে লাইভে এসে মৌ. আহমদ শফির লাশের সামনে তাকে ও তার পুত্রকে নিয়ে অশালীন মন্তব্য করেছে। অথচ তাদের এই বিশৃঙ্খল কর্মকান্ডে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে নিরাপরাধ সুন্নি আলেমের বিরুদ্ধে মামলা করে তারা দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির পাঁয়তারা চালাচ্ছে। মূলত: হেফাজতের মধ্যে বিরাজমান আন্ত:কোন্দল হতে সাধারণ জনতার দৃষ্টি ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে চিহ্নিত হেফাজত কর্মীরা মুফতি আলাউদ্দীন জিহাদীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে।

এতে উপস্থিত ছিলেন, যুবনেতা এহেছান, যুবনেতা সৈয়্যদ করিম, মাওলানা আব্দুল গফুর, আতিকুল রহমান ,ফরিদুল আলম, হারুনুর রশিদ, ইয়াসিন উল্লাহ, ইমাম হোসেন, মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, মোঃ তৌফিকুল ইসলাম, রাশেদুল ইসলাম, আব্দুল হামিদ, সম্পাদক তারেকুর রহমান ফয়সাল ,নাসের ফয়সাল রাসেল, মোঃ ফাহিম, সাইফুল ইসলাম, খাজা এমদাদ উল্লাহ, মোঃ তাহিম, মোঃ ইউনুস, মোঃ ইয়াসিন আবরার, মোহাম্মদ মাহমুদ, মোঃ সাদ্দাম হোসেন, সোহেল রানা, শাহিন উদ্দিন প্রমুখ।

নেতারা জিহাদী হুজুরের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার করে তাকে স্ব-সম্মানে মুক্তি প্রদানের জন্য জোর দাবি জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •