মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

গত তিন দিন ধরে প্রচন্ড তাপদাহের পর বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এ লঘু চাপের কারণে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ৩ নং সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। কক্সবাজার আবহাওয়া অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

একইসাথে মাছধরার ট্রলারসমুহকে উপকুলের কাছাকাছি সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় সৃষ্ট লঘুচাপের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকুলীয় এলাকা ও সমুদ্র বন্দরের উপর দিয়ে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত ও ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এছাড়া, উত্তর বঙ্গোপসাগরে মৌসুমী বায়ু সক্রিয় রয়েছে এবং গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালার সৃষ্টি হচ্ছে।

ভ্যাপসা গরমের পর শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর রাতে ও রোববার ২০ সেপ্টেম্বর বিকালে ১০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

১৯ সেপ্টেম্বর শনিবার কক্সবাজারের তাপমাত্রা ছিল সর্বোচ্চ ৩৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগেরদিন ১৮ সেপ্টেম্বর তাপমাত্রা ছিল ছিল ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার ২০ সেপ্টেম্বর তাপমাত্রা ছিল ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সাগরে লঘুচাপ সৃষ্টির ফলে আবহাওয়া বিভাগের সতর্কতা সংকেত জারির পর শত শত জেলে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরা বন্ধ করে দিয়ে ফিশিং ট্রলার নিয়ে রোববার ২০ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা থেকে ঘাটে ফিরতে শুরু করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •