উখিয়া ক্রাইম নিউজ ডেস্ক ক্রেডিটে ‘আর কত নারী ধর্ষণ করলে ধর্ষক মোসলিমকে আটক করবে পুলিশ?’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। 

ওই সংবাদে যেসব বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।
সংবাদের সাথে বাস্তবতার কোন মিল নাই। আমি প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
প্রকাশিত সংবাদে আমার প্রচুর মানহানি ও সামাজিক মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে।
আমি জালিয়াপালং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। বর্তমান আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয়ভাবে জড়িত।
হামিদা বেগম নামের কোন নারীর সাথে আমার পরিচয় কিংবা সম্পর্ক নাই।
রাজনৈতিক ও সামাজিকভাব আমাকে হেয় করতে হামিদার সাথে জড়িয়ে সংবাদটি করা হয়েছে।
সংবাদের পর খোঁজ নিয়ে জেনেছি, হামিদা বেগম একজন খারাপ চরিত্রের মহিলা। তার সম্পর্কে সকলে অবগত। আইন শৃঙ্খলা পরিপন্থি বিভিন্ন অনৈতিক কাজে সে জড়িত। অনুসন্ধানপূর্বক তাকে আইনের আওতায় আনা দরকার।

প্রতিবাদকারি
মোসলিম উদ্দিন কার্জন
সোনার পাড়া, জালিয়াপালং
উখিয়া, কক্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •