আবুল কালাম, চট্টগ্রাম :

চট্টগ্রামের জামিয়া আহলিয়া দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী বড় মাদ্রাসায় চলমান ছাত্র আন্দোলনে হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মাঈনুদ্দিন রুহীকে গণপিটুনি দিয়েছে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা।

আজ বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে হাটাহজারী মাদ্রাসার পরিচালক আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানীকে বহিষ্কারসহ বিভিন্ন দাবীতে মাঠে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন শুরু করে মাদ্রাসার ছাত্ররা। এরমধ্যে বিকাল ৫ টার দিকে বিক্ষুব্ধ ছাত্ররা জানতে পারে মাওলানা মাঈনুদ্দিন রুহি হাটহাজারী মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আহমদ দীদার সাহেবের রুমে অবস্থান করছেন। এরপর আহমদ দীদারের রুম থেকে মাঈনুদ্দিন রুহিকে বের করে বিক্ষুদ্ধ ছাত্ররা গণপিটুনি দেয়। পরে কয়েকজন শিক্ষক ছাত্রদের হাত থেকে রুহীকে উদ্ধার করে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বর্তমানে তিনি হাটহাজারী মাদ্রাসাতেই বিশ্রামে আছেন।

আন্দোলনরত ছাত্রদের দাবী, শফীপুত্র আনাস মাদানীর সহযোগি মাওলানা মাইনুদ্দীন রুহী। তারা দুইজনই শলাপরামর্শের মাধ্যমে হাটাহাজারী মাদ্রাসাসহ কওমী অঙ্গনে সব অনিয়ম এবং অরাজকতার বীজ বপন করেছেন। কোনো দায়িত্বে না থাকা সত্ত্বেও আজও তিনি মাদ্রাসায় অবস্থান করে নানা ষড়যন্ত্র করছিল। তাই তাকে ধরে উত্তম-মাধ্যম দেয়া হয়েছে।

এদিকে উত্তেজিত ছাত্ররা বিক্ষুব্ধ ভাবে মাদ্রাসায় অবস্থান করে ছাত্রদের এই অবরুদ্ধ পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সকাল থেকে অবস্থান নিয়েছিল মাদ্রাসা সহ আশেপাশের এলাকায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •