জহির খন্দকার ,ঈদগড় :

ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কের পাত্তারা টেক নামক স্থান থেকে  মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৮ টায় সন্ত্রাসীরা ২ জন অটো-রিক্সার যাত্রীকে অপহরণ করে। অপহৃতদের ছাড়তে ২ লক্ষ টাকা মুক্তিপন দাবী করছে বলে অপহৃতদের পরিবার জানিয়েছেন। অপহৃতদের বাড়িতে মোবাইল করে তারা এ দাবী করা হয় ।
অপহৃতরা হলেন টেকনাফ  হাতিয়ার ঘোনা গ্রামের আবুল হোসনের পুত্র মোঃ সোলেমান (২৮) ও একই গ্রামের মোহাম্মদ ইউছুপের পুত্র লাল মিয়া (২৬) বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তারা প্রতি বছরের ন্যায় পানের চারা ক্রয় করার জন্য ঈদগড়ে এসেছিল।

জানা যায়, টেকনাফ থানার হাতিয়ার ঘোনা গ্রামের ২ জন পানের চারা ব্যবসায়ী আজ সকাল সাড়ে ৭ টায় ঈদগড় ৯ নং ওয়ার্ডের জালাল চেয়ারম্যানের রাস্তা মুখ থেকে অটো-রিক্সা চালক রিদোয়ানের অটো-রিক্সায় করে রওয়ানা দিয়ে সাড়ে ৮ টায় সড়কের পাত্তরার টেক নামক স্হানে পৌছলে উৎপেতে থাকা সন্ত্রাসীরা অস্ত্রের মুখে ২ যাত্রীকে অপহরণ করে গহীন বনে নিয়ে যায় এবং অটো-রিক্সা চালক রিদোয়ান কে অমানবিক  মারধর করে ছেড়ে দেয়।

ঈদগড় করলিয়ামুরা আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা দেলওয়ার হোসনের পুত্র অটো-রিক্সা চালক রিদোয়ান জানান অপহৃত ২ যাত্রী টেক নাফের বাসিন্দা। তাদের নাম পাওয়া যাইনি। তারা পানের আগা কিনতে ঈদগড়ে এসেছিল। টেকনাফ থেকে আসা পানের আগা ব্যবসায়ীদের প্রত্যেক জনের কাছে ক্যাশ ২ /৩ লক্ষ টাকা মওজুত থাকতে পারে বলে ব্যবসা সংশ্লিষ্ট লোকজন জানিয়েছেন।

এ দিকে একটি সুত্র দাবী করেছে,  এই অপহরন পুর্ব পরিকল্পিত। পানের আগা ব্যবসায়ীরা গতরাতে করলিয়ামুরা এলাকায় কোন বাড়ীতে রাত্রীযাপন করেছিল। তারা যে সকালে অটো-রিক্সায় করে সকালে চলে যাবে সেটা অপহরনকারীরা আগেই জানত। তাই এই ২ জনকে অপহরন করার জন্যই অপহরনকারীরা সড়কে অবস্থান নিয়ে অপহরন করে থাকতে পারে।

ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান জানান অপহৃতদের উদ্ধারে অভিযান চলছে। অপহরনকারীদের কিছুতেই ছাড় দেওয়া হবে না

সম্প্রতি ঈদগড়-ঈদগাঁও সড়কে ডাকাতি অপহরনের ঘটনা বৃদ্ধি হওয়ায় যাত্রীদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •