প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

মিথ্যা মামলায় ২মাস ৪দিন পর যুবলীগ নেতা আব্দুল মালেক কারামুক্ত হলেন। দীর্ঘদিন আইনি লড়াই শেষে ১৪ সেপ্টেম্বর তিনি কারামুক্তি পান। এ উপলক্ষে দলীয় নেতাকর্মী ও পিএমখালী ইউনিয়নের সাধারন জনগন মোটর শোভাযাত্রা ও ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেছেন তাকে।

সাবেক ছাত্রনেতা আব্দুল মালেক বর্তমানে সদর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সহ-সভাপতি পদে দায়িত্বরত। দীর্ঘদিন তার রাজনৈতিক জীবনে জামায়াত বিএনপির অনেক নির্যাতন উপেক্ষা করে তিনি টিকে আছেন রাজনীতির মাঠে।

আজ বিকেলে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় কারাগার হতে তাকে রিসিভ করে একটি বিশাল গাড়ি বহর সদরের পিএমখালী বাজারে গিয়ে পৌছে। সেখানে  পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত পথসভায় সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ- সভাপতি হাফিজুল ইসলাম লাভলুর সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন পিএমখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জয়নাল আবেদীন হাজারী। আরো বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীর আলম, সহ-সভাপতি কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ,সিরাজুল মোস্তফা আলাল সভাপতি পিএমখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ।

সবশেষে সমাপনী বক্তব্য দেন কারা নির্যাতিত আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল মালেক। তিনি বক্তব্যে বলেন, আমাকে মিথ্যা মামলার আসামী করা হয়েছে উদ্দেশ্য প্রণোদিত তা ইউনিয়নবাসী অবগত রয়েছে। সত্যের জয় হবেই,মিথ্যা বিলুপ্ত হই তা আজ আবার প্রমানিত হয়েছে। উপস্থিত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি। সবার ভালবাসা ও আন্তরিকতায় তিনি আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। তিনি সকলের দোয়া চেয়ে সমাপনী বক্তব্য শেষ করেন।

উক্ত গণসংবর্ধনায় আরো উপস্থিত ছিলেন টিপু সুলতান চেয়ারম্যান ১০ নং ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদ,আব্দুল কাদের সহ-সভাপতি সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ, হারুনুর রশিদ, সাঃ সম্পাদক পিএমখালী সমবায় সমিতি,মাওলানা আব্দুল গফুর,সভাপতি আবু বক্কর (রা:) মাদ্রাসা,বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নুরুল আজিম ঠিকাদার ও দপ্তর সম্পাদক পিএমখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ,মনির আলম ইউপি সদস্য, আরিফ উল্লাহ ইউপি সদস্য,আহমদ কবির ইউপি সদস্য,আব্বাস উদ্দীন ইউপি সদস্য,মোস্তাক আহমদ ইউপি সদস্য, আবুল কালাম, ক্রীড়া সম্পাদক, পিএমখালী আওয়ামীলীগ।
এবং আরো উপস্থিত ছিলেন, সদর যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান সিকদার ও তাহেরুল ইসলাম সদস্য সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ।

আরো  উপস্থিতি  ছিলেন বোরহান উদ্দীন খোকন, যুগ্ন সাঃ সম্পাদক কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ, জুবায়ের হোসেন তুহিন,সদর ছাত্রলীগ।
বাবু সিকদার, যুগ্ন আহবায়ক ঝিলংজা ছাত্রলীগ।
প্রবাসীদের মধ্যে,এমদাদ উল্লাহ,ডাঃ আজিজ কামাল উদ্দীন।এছাড়াও,মতিউল ইসলাম সভাপতি স্বেচ্ছাসেবলীগ সাঃ সম্পাদক পিএমখালী।
নুরুল হাকীম বাদল, সাঃ সম্পাদক পিএমখালী স্বেচ্ছাসেবকলীগ।রেজাউল করিম, সাবেক সভাপতি পিএমখালী ছাত্রলীগ, ৯৪ ব্যাচ হতে
রাশেদুল ইসলাম,মাহবুবুর রহমান,মাসুদুর রহমান মাসুদ,সিরাজুল হক।রশিদ আহমদ, (ইমাম,মাইজপাড়া উত্তরপাড়া জুমা মসজিদ),এনাম,বাবুল,মনসুর, রমিজ,ফেফায়েত উল্লাহ,ওসমান গনি,ভুট্টো,কুরশেদ আলম প্রমুখ সহ আরো অনেকে।

প্রসঙ্গতঃগত ৪ জুলাই কক্সবাজার সদর মডেল থানা থাকে গ্রেফতার করে কারাগারে প্রেরন করে। কক্সবাজার সদরের পিএমখালী ইউনিয়নের জুমছড়ি এলাকার একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে আসামী করা হয়। মূলত তাকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দমিয়ে রাখতে বৃথা চেষ্টা করে যাচ্ছে একটি কুচক্রি মহল। এই মিথ্যা মামলায় হতে তাকে অব্যাহতি দেওয়ার জন্য অনেকবার মানববন্ধন ও প্রতিবাদ জানায় পিএমখালীর সাধারন জনগন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •