বিশেষ প্রতিবেদক:

দেশের বিরাজনীতির ক্রান্তিকালে এবি পার্টির উন্মেষ জাতির জন্য আশির্বাদ বলে মন্তব্য করেছেন এবি পার্টির নেতৃবৃন্দ । গুম, খুনসহ নানা অনাচার, গনতন্ত্রহীনতা ও অধিকার বঞ্চিত এই জাতির জন্য ভরসার আর কোন জায়গা নেই। বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর উপর নির্ভর করবার কোন সুযোগ নেই। বিরোধী দলগুলো ও জাতিকে কোন পথ দেখাতে পারছে না।
কক্সবাজারে চকরিয়া ও পেকুয়ায় পৃথক দুইটি সমাবেশে আমার বাংলাদেশ পার্টির (এবি পার্টি) নেতৃবৃন্দ একথা বলেন।

প্রধান বক্তা এবি পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব মজিবুর রহমান মন্জু তার বক্তৃতায় বলেন আওয়ামী লীগের আদর্শ বঙ্গবন্ধুর মুজিববাদ বা ধর্মনিরপেক্ষতা, বিএনপির আদর্শ শহীদ জিয়ার ১৯ দফা ও বহুদলীয় গণতন্ত্র।
এই উভয় দলের নেতাদের অবদান বাংলাদেশে অবিস্মরণীয়। কিন্তু বাস্তবে আমরা দেখতে পাচ্ছি উভয় দলের রাজনীতি ও ক্ষমতা চর্চায় কোন পার্থক্য নাই। উভয় দলের ক্ষমতার আদর্শ এক। গনতন্ত্র নস্যাৎ করতে এবং বাংলাদেশের নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংসে উভয় দল একই ধারণের ভূমিকা রেখেছে।

অপর দিকে যারা ধর্ম এবং সমাজতন্ত্র কে আদর্শ হিসেবে নিয়েছে তারাও এই দুই দলের জোটভুক্ত হয়ে তাদের দুর্নীতি, পরিবারতন্ত্র ও ক্ষমতার অপব্যবহারের সঙ্গী হয়েছে। জাতির প্রশ্ন হলো আদর্শ কি সাইনবোর্ড স্বর্বস্ব কোন ফাঁকা বুলির নাম? নাকি আদর্শ হলো কল্যাণকর কাজের নাম? তিনি বলেন এবি পার্টি নাগরিক অধিকার ও মানব কল্যান কে সার্বজনীন আদর্শ হিসেবে গ্রহন করেছে।

তিনি আরো বলেন, স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে উল্লেখিত তিন মূলনীতি – সাম্য, মানবিক মর্যাদা ও সামাজিক ন্যায়বিচার -এর আলোকে দেশ বিনির্মান ও মেরামতের কাজে ঝাপিয়ে পড়া ছাড়া এই জাতির উত্তরনের কোন পথ খোলা নেই। তিনি সকলকে এই ঐক্য ও অধিকারের রাজনীতিতে শামিল হবার জন্য আহবান জানান।

সোমবার ১৪ সেপ্টেম্বর সকাল ও বিকেলে চকরিয়ার চিরিঙ্গা জিদ্দাবাজার রয়েল প্যালেস কমিউনিটি সেন্টারে ও পেকুয়ায় জেলী কমিউনিটি সেন্টারে ‘আমার বাংলাদেশ পার্টির (এবি পার্টি) ‘করোনায় রাজনৈতিক কর্মীদের করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর কাসেম, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সদস্য সচিব ব্যারিস্টার আসাদুজ্জামান ফুয়াদ, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সদস্য সচিব এড. গোলাম ফারুক খান কায়সার, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সদস্য সচিব সাবেক ককসু জিএস এড. এনামুল হক সিকদার, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সদস্য সচিব সাংবাদিক শামসুল হক শারেক, কেন্দ্রীয় সদস্য আব্দুর রহমান, সাবেক ককসু ভিপি আলহাজ্ব সৈয়দ করিম, কেন্দ্রীয় সদস্য এড. সাকিব হাসান ও সমাজ সেবক আবুল কাসেম প্রমুখ।

পেকুয়ার অনুষ্ঠানে বিশেষ আকর্ষণ ছিলেন স্থানীয় বারবাকিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা বদিউল আলম। তাঁর এবি পার্টির সভায় যোগদান ব্যাপক আলোচনা সৃষ্টি করে ।

বিশিষ্ট আইনজীবী ওসমান আলীর সভাপতিত্বে চকরিয়া এবং মাওলানা শের আলীর সভাপতিত্বে পেকুয়ায় অনুষ্ঠিত এই আলোচনা সভা পরিচালনা করেন এবি পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সদস্য সচিব এড. গোলাম ফারুক খান কায়সার ও কেন্দ্রীয় সদস্য প্রফেসর আব্দুল ওয়াহেদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •