সংবাদদাতা:
চট্টগ্রামের কালুরঘাট ব্রিজের নকশা তৈরির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। তাছাড়া দোহাজারী-কক্সবাজার পর্যন্ত সুবিধা পাওয়ার জন্য কালুরঘাট ব্রিজ এবং চট্টগ্রাম থেকে দোহাজারী পর্যন্ত রেলপথ মিটার গেজের পরির্বতে ব্রডগেজে রুপান্তর করার কথা ভাবছে রেল মন্ত্রণালয়।

চট্টগ্রাম-দোহাজারী ও কক্সবাজারের বিভিন্ন প্রকল্প ঘুরে শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৬টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে এমনটাই জানালেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশনা দিয়েছেন রেলের সকল রুট মিটারগেজের পরিবর্তে ব্রডগেজে রুপান্তর করার জন্য। এ কারণে লাকসাম থেকে আখাউড়া পর্যন্ত ডাবল লাইনের কাজ ২০২২ সালের মধ্যে শেষ করার চেষ্টা চলছে। তাছাড়া চট্টগ্রাম থেকে লাকসাম পর্যন্ত রেললাইন ডুয়েলগেজে রুপান্তর করতে হবে। আখাউড়া থেকে টুঙ্গি পর্যন্ত রেললাইনেও ডুয়েলগেজে রুপান্তর করতে হবে। এসব কাজ যদি সম্পন্ন হয় তাহলে মিটারগেজ এবং ব্রডগেজে ট্রেন আমরা চালাতে পারবো।

এসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, রেলওয়ের সম্পদ বেআইনিভাবে ভোগ করতে দেওয়া হবে না। আমরা দখলে থাকা ভূমি উদ্ধারে শক্ত হাতে নেমেছি। দায়িত্ব নেওয়ার দেড় বছরের মধ্যে রেলওয়েতে পেশি শক্তিকে নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। ২০১১ সালে আলাদা রেলমন্ত্রণালয় করার পর রেলকে সুশৃঙ্খল অবস্থায় ফেরানোর চেষ্টা চলছে।

অন্যদিকে সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোতে প্রকল্প কাজ পরিদর্শন শেষে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে মন্ত্রী জানান, চলমান প্রকল্পের কাজগুলো ২০২২ সালের জুনের মধ্যে শেষ হবে। প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, মাঠের কাজ ২০২১ সালের মার্চ মাসের মধ্যে সম্পন্ন হবে। সেই হিসেবে স্থানীয় পর্যায়ে স্টেশন, প্লাটফরম সহ অন্যান্য কাজগুলোও নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে শেষ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •