ডেস্ক নিউজ:
উগ্রবাদী গোষ্ঠীর মোকাবেলা ও মার্কিন স্বার্থ রক্ষায় ৫২০০ সেনা মোতায়েন রয়েছে ইরাকে। এবার ইরাক থেকে সেই সেনা প্রত্যাহারে অফিসিয়াল ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) মার্কিন সামরিক বাহিনী এক অফিসিয়াল ঘোষণায় বলেছে, তারা ইরাকে সামরিক উপস্থিতি ৫২০০ থেকে কমিয়ে ৩০০০ করার পদক্ষেপ নিয়েছে। যা দীর্ঘ প্রত্যাশিত একটি পদক্ষেপ।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরাক থেকে সেনাকে ফিরিয়ে নেয়ার আকাঙ্ক্ষা পুনর্ব্যক্ত করে সম্প্রতি বলেছিলেন যে, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেনা প্রত্যাহার করা হবে। গত মাসে রয়টার্স জানিয়েছিল যে, আমেরিকা ইরাকে সেনাবাহিনীর উপস্থিতি প্রায় এক তৃতীয়াংশে কমিয়ে আনবে বলে আশা করা হচ্ছে।

মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোটের কর্মকর্তারা বলছেন, উগ্রপন্থী গোষ্ঠীর অবশিষ্টাংশ দমনে এখন ইরাকি বাহিনী নিজেরাই সক্ষম। তবে অবশিষ্ট ৩ হাজার সেনা ইরাকে আইএস দমনে রেখে দেওয়া হবে।

ইউএস সেন্ট্রাল কমান্ডের প্রধান মেরিন জেনারেল ফ্রাঙ্ক ম্যাকেনজি ইরাক সফরকালে বলেছিলেন, আমরা আমাদের অংশীদারদের সক্ষমতা বৃদ্ধির কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছি যাতে ইরাকি বাহিনী নিজেরাই নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সক্ষম হয় এবং ইরাকে আমাদের উপস্থিতি হ্রাস করতে পারি।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এটাও বলেছেন যে, মার্কিন সেনা উপস্থিতিতে শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বয়ে আনতে পারে নি ইরাকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •