অনলাইন ডেস্ক :  গায়ে ছেঁড়া শার্ট। মাথা লম্বা চুল, মুখে দাঁড়ি। অগোছালো এমন এক ব্যক্তিই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার গাছে একের পর এক ‘আল্লাহ’ লিখে যাচ্ছিলেন।

যা দেখে অনেকেই ছবি তুলছেন, পোস্ট করছেন সামাজিক যোগাযোগামধ্যম ফেসবুকে। বিষয়টি ইতোমধ্যেই সরগরম হয়েছে। লাইক-শেয়ার হচ্ছে হাজার হাজার।

নাইমা মোস্তারি ইশিতা নামের একজন লিখেছেন, “পাগল হলে এমন পাগলই হওয়া উচিত।” সাইফুদ্দিন সুফিয়ান নামে একজন লিখেছেন, ‘মনের সুখে তিনি গাছ থেকে গাছে মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের নাম লিখে যাচ্ছেন।

বাংলাদেশের সংসদ ভবন এলাকায় সুন্দর ও স্বচ্ছ মনের চিত্রায়ন করেছেন। ফেসবুক সূত্রে জেনেছি, লোকটি ভবঘুরে! কিন্তু লোকটির মন তো অনেক স্বচ্ছ ও সুন্দর।’ জানা গেছে, গাছগুলোয় এমন শব্দের আর্টিস্ট আসাদ নামে এক ভবঘুরে।

লেখার কারণ সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেন, লেখাটি কেউ যখন পড়বে, তখন পড়া মাত্রই বিষয়টি আল্লাহর কানে পৌঁছাবে এবং তিনি খুশি হয়ে যাবেন।’ এর আগে গোলাপ শাহ মাজার থেকে শুরু করে পুলিশ হেডকোয়ার্টার পর্যন্ত লাগানো গাছগুলোতেও এমন লিখেছিলেন বলে জানান।

এই ছবি গুলা এখন সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ভাইরাল। পেজ,আইডি, গ্রুপ সব দিক দিয়ে সবাই পোস্ট করে কমেন্ট করে প্রশংসা করেই যাচ্ছেন এমন সুন্দর প্রতিভা মূলক কাজের জন্য। যেমন হাতের লিখা সুন্দর তেমনি রং সেই লিখা এক কথায় অসাধারন প্রতিভা, এমন হাতের লিখা কোন সাধারণ আর্টিষ্ট এর পক্ষে সম্ভব হবেনা, লোকটি ভবঘুরে! কিন্তু লোকটির মন তো অনেক স্বচ্ছ ও সুন্দর।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •