এম. আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও
কক্সবাজার সদরের বৃহত্তর ঈদগাঁওর পোকখালী, ঈদগাঁও এবং ইসলামপুর ইউনিয়নে নেই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র।
এতে করে চরমভাবে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছে গ্রামীন জনপদের বাসিন্দারা।
প্রতি ইউনিয়নে একটি করে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র থাকার কথা থাকলেও তা বাস্তবায়নের কোন লক্ষ্যন নেই।
জালালাবাদ-ইসলামাবাদে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র থাকলেও অপরাপর তিন ইউনিয়নের অসহায় রোগী দেরকে প্রতিনিয়ত চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এতে দুই ইউনিয়নের দায়িত্বশীল চিকিৎসকরা নানাভাবে হিমশিম খাচ্ছেন।
দেখা যায়, জালালাবাদ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রটি ঈদগাঁও বাজারের দক্ষিণ পাশে হওয়ায় জালালাবাদ ইউনিয়ন ছাড়াও বৃহত্তর ঈদগাঁওর বিভিন্ন গ্রামাঞ্চল থেকে রোগীরা প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ভীড় করে থাকে। স্বস্ব ইউনিয়ন ভিক্তিক স্বাস্থ্য কল্যান কেন্দ্র না থাকার ফলে এক ইউনিয়নের লোকজনকে অন্য ইউনিয়নে গিয়ে স্বাস্থ্য সেবা নিতে হচ্ছে। এতে অযথা সময়সহ অর্থের অপচয় হচ্ছে বলে জানান গ্রামাঞ্চল থেকে অসহায় রোগীরা।
পোকখালী ইউপি চেয়ারম্যান রফিক আহমদ জানান, ইউনিয়নে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র নেই। এলাকার অসহায় মানুষের দিকে দৃষ্টি রেখে ইউনিয়নে একটি স্বাস্থ্য কল্যান কেন্দ্র নির্মানের দাবী জানান সংশ্লিষ্টদের নিকট।
ইসলামপুুুরের ইউপি সদস্য আবদু শুক্কুর জানান, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র না থাকায় সঠিক স্বাস্থ্যসেবা বঞ্চিত হচ্ছে মানুষজন।
জালালাবাদ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্রের উপসহকারী কমিউ নিটি মেডিক্যাল অফিসার ডা: আবুল বশর জানান, ইসলামপুর-পোকখালীতে পরিবার কল্যান কেন্দ্র নেই। তবে ঈদগাঁওর স্থাপনা পঁচা পানিতে ডুবা। যার দরুন তুলনামুলকভাবে রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •