সোয়েব সাঈদ, রামু :
রামুর বাঁকখালী নদীতে অবমুক্তকৃত পোনা মাছ, আগামী দুই মাসের মধ্যে ধরা যাবে না। অবমুক্ত করা পোনা মাছ বড় হলে, নদী তীরবর্তী দরিদ্র জনগোষ্ঠীই লাভবান হবেন বেশি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সুখী সমৃদ্ধ দেশ গড়তে, মাছ উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হবে। বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টায় রামু বাঁকখালী নদীর ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের পূর্ব দ্বীপ পয়েন্টে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল।
সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বাঁকখালী নদীতে বিষ প্রয়োগ করে, মাছ শিকারিদের বিরুদ্ধে হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, নদীতে বিষ প্রয়োগকারীদের দূর্বৃত্ত্বদের বিরুদ্ধ আইনানুগ অভিযান পরিচালনা করা হবে।
রামু উপজেলায় বাঁকখালী নদীতে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, রামু উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. মামুনুর রশিদ, রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, রামু প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি খালেদ শহীদ, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবক লীগ সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, যুগ্ম সম্পাদক আবুবক্কর ছিদ্দিক, রামু রিপোর্টাস ইউনিটির সাবেক সভাপতি সোয়েব সাঈদ, রামু কলেজের শিক্ষক ফুটবলার জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা জ্যোতির্ম্ময় বড়ুয়া রিগান, এড. তানভীর শাহ প্রমুখ।
রামু উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. মামুনুর রশিদ জানান, অভ্যন্তরীণ জলাভূমি, বর্ষা প্লাবিত ধানক্ষেত, প্লাবন ভূমি, প্রাতিষ্ঠানিক জলাশয়ে পোনা মাছ অবমুক্তকরণ ও বিতরণ কর্মসূচির আওতায় রামুর বাঁকখালী নদীতে পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়েছে। মৎস্য অধিদপ্তরাধীন ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে রাজস্ব বাজেটের আওতায় বাঁকখালী নদীতে ২১০ কেজি রুই, কাতল, মৃগেল, কালিবাস সহ নানা জাতের মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে। কর্মসূচির আওতায় আগেরদিন ২ সেপ্টেম্বর রামু উপজেলা পরিষদ পুকুর সহ বিভিন্ন প্রাতিষ্ঠানিক জলাশয়ে মৎস্য পোনা অবমুক্ত করেন, রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •