মোস্তফা কামাল :
চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারায় যাত্রা পথে এক কিশোরীকে গাড়ি থেকে জোরপূর্বক নামিয়ে গহীন বনে তুলে নিয়ে ধর্ষণ কালে স্থানীয়রা অভিযান চালিয়ে এক বখাটে যুবককে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে।

বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডুলাহাজারা ইউনিয়নের মালুমঘাট বাজারের অদূরে মহাসড়কের পূর্বপার্শে কোনাপাড়া সংলগ্ন বন ভূমির ভেতর এঘটনা ঘটে। আটক বখাটে যুবক ফজল করিম (৩০) ইউনিয়নের উলুবনিয়া গ্রামের ছালে আহমদের ছেলে বলে জানা যায়।

স্থানীয় লোকজন ও পুলিশের কাছে ভিক্টিমের দেওয়া জবানবন্দীতে জানা যায়, এদিন দুপুরে ওই কিশোরী তার নিজ বাড়ি উপজেলার বদরখালী থেকে লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের হারগাজা গ্রামে এক আত্নীয়ের বাড়িতে যাওয়ার জন্য ঘর থেকে বের হয়। কিশোরীটি বদরখালী থেকে চকরিয়া শহরে আসার পর সেখান থেকে যাত্রীবাহী ম্যাজিক গাড়ি যোগে ডুলাহাজারা যাওয়ার পথে গাড়িটি মহাসড়কের মালুমঘাট বাজারের উত্তর পাশে যাত্রী নামানোর সময় সেখানে উপস্থিত অভিযুক্ত যুবক ফজল করিম ওই কিশোরীর কাছে ইয়াবা ট্যাবলেট থাকার কথা বলে মেয়েটিকে জোরপূর্বক গাড়ি থেকে নামিয়ে ফেলে।

ভিক্টিম কিশোরী অভিযোগ করে জানান, যুবকটি তাকে জোরপূর্বক গাড়ি থেকে নামানোর সময় গাড়িতে থাকা অন্য যাত্রীরা প্রথমে যুবকটিকে বাধা দিলেও যাত্রীদের লেট হওয়ায়  তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে দেন। এতে যুবকটি তাকে চেক করার কথা বলে পাশের বনের ভেতর নিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় তার শো-চিৎকারে পাশের এলাকার লোকজন এগিয়ে গিয়ে তাকে উদ্ধার ও ধর্ষক যুবককে আটক করে। পরে এলাকার লোকজন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ শওকত আলীর সহায়তায় তাদেরকে থানায় সোপর্দ করা হয়।

এবিষয়ে জানতে চাইলে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ হাবিবুর রহমান বলেন, ডুলাহাজারায় এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে জনতার হাতে আটক যুবকসহ ভিক্টিমকে স্থানীয় পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান শওকত আলীর মাধ্যমে থানায় আনা হয়। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •