হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর :
কক্সবাজারের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষাকেন্দ্র রামু চাকমারকুল জামেয়া দারুল উলুমের প্রবীণ মুহাদ্দিস, বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি রামু উপজেলার উপদেষ্টা, চাকমারকুল ইসলামী ঐক্য পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা মাওলানা ছৈয়দ আকবর সাহেব হুজুর রহ.
রহ. এর নামাজে জানাযা সম্পন্ন হয়েছে। ২১ আগষ্ট ( জুমাবার) সকাল সাড়ে ১০ টায় মরহুমের দীর্ঘ কর্মজীবনের স্মৃতিবিজড়িত ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষাকেন্দ্র রামু চাকমারকুল জামেয়া দারুল উলুমের মাঠে অনুষ্ঠিত নামাজে জানাযায় নানা প্রান্ত থেকে বিশিষ্ট আলেম-ওলামা, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতৃবৃন্দ, মরহুমের অসংখ্য ছাত্র-ভক্ত শরীক হন।
বিপুল সংখ্যক শোকার্ত তৌহিদী জনতার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত বিশাল নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন মরহুমের বড় ছেলে, বিশিষ্ট আলিম মাওলানা মোহাম্মদ ছৈয়দ আরমান।

জানাযার পূর্বে সংক্ষিপ্ত স্মৃতিচারণ করেন, কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল, রামু জোয়ারিয়ানালা এমদাদুল উলুম মাদ্রাসার নায়েবে মুহতামিম মাওলানা হাফেজ আবদুল হক, মরহুমের বিশিষ্ট ছাত্র বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির যুগ্ম-মহাসচিব ও কক্সবাজার জেলা আমীর মাওলানা হাফেজ ছালামতুল্লাহ, চাকমারকুল মাদ্রাসার প্রবীণ শিক্ষক মাওলানা মুফতি ফিরোজ আহমদ, জেলা হেফাজতে ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ইয়াছিন হাবিব, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল হক কোম্পানী, চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, চাকমারকুলের সাবেক চেয়ারম্যান মুফিদুল আলম, মরহুমের ভাতিজা, ইউপি সদস্য মোস্তাক আহমদ, মরহুমের ছেলে ও রামু লেখক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আহমদ ছৈয়দ ফরমান, ইসলামী ছাত্রসমাজ নেতা হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর, চাকমারকুল ইসলামী ঐক্যপরিষদের সভাপতি মাওলানা হুমায়ুন কবির প্রমুখ।
সংক্ষিপ্ত স্মৃতিচারণ পর্ব সঞ্চালনা ও সমন্বয় করেন, চাকমারকুল মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক, মরহুমের একান্ত ছাত্র চাকমারকুল ইসলামী ঐক্যপরিষদের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা হাফেজ দেলোয়ার হোসাইন।
নামাজে জানাযা শেষে চাকমারকুল আলী হোসাইন সিকদার পাড়া কবরস্থানে মরহুমকে দাফন করা হয়।
উল্লেখ্য, মাওলানা ছৈয়দ আকবর সাহেব হুজুর রহ. ২০ আগষ্ট ( বৃহস্পতিবার) বাদ মাগরিব ৬ টা ৫০ মিনিটে রামু চাকমারকুল আলী হোসাইন সিকদার পাড়ার নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন-ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিলো ৭১ বছর। তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে, ২ মেয়েসহ অসংখ্য ছাত্র-ভক্ত ও গুণগ্রাহী রেখে যান।

এদিকে বিশিষ্ট মুহাদ্দিস মাওলানা ছৈয়দ আকবর রহ. এর ইন্তেকালে গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করে বিবৃতি দিয়েছেন, ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রাজারকুল আজিজুল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা মোহাম্মদ মোহছেন শরীফ, কক্সবাজার ইসলামী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি মাওলানা নুরুল হক চকোরী, সাধরণ সম্পাদক মাওলানা কাজী এরশাদুল্লাহ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মদ আবুল মঞ্জুর, অর্থ সম্পাদক মাওলানা হাফেজ মুবিনুল হক প্রমুখ।
এক শোকবার্তায় তাঁরা বলেন, মাওলানা ছৈয়দ আকবর রহ. ছিলেন, একজন বিদগ্ধ মুহাদ্দিস, দ্বীনের একনিষ্ঠ খাদেম। সারাটি জীবন তিনি ইলমে দ্বীন চর্চা, দ্বীনি দাওয়াতের প্রসার ও সমাজ শুদ্ধির মিশনে আত্মনিবেদিত ছিলেন।শিরক–বিদআতসহ যাবতীয় কুসংস্কার ও অপসংস্কৃতি নির্মূলে তিনি ছিলেন নির্ভীক সিপাহসালার। ইসলামী শিক্ষা বিস্তার ও সমাজ সংস্কারে তাঁর নিষ্ঠাপূর্ণ অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। বিদগ্ধ এ আলেমেদ্বীনের ইন্তেকালে আমরা অকৃত্রিম অভিভাবককে হারালাম। আমরা আল্লাহর দরবারে মরহুমের দরজাত বুলন্দি কামনা করি এবং শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •