মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

মেজর (অবঃ) সিনহা মোঃ রাশেদ হত্যা মামলার তদন্তে গঠিত উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়েছে।

নির্ভরযোগ্য সুত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ নিয়ে ২য় দফায় তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন দাখিল করতে সময় বর্ধিত করা হলো। এর আগে প্রথম দফায় ২৩ আগস্ট পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়েছিলো। কমিটি গঠন করে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে অর্থাৎ গত ১২ আগস্টের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা ছিলো।

গত ৩১ আগস্ট মেজর (অবঃ) সিনহা মোঃ রাশেদকে গুলি করে হত্যার পর উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে গত ২আগস্ট চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) ও সরকারের যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে আহবায়ক করে এই কমিটি গঠন করা হয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে এই তদন্ত কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়। তদন্ত কমিটিকে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিলো। সে অনুযায়ী আগামী ১২ আগস্ট তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন দাখিলের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়।

ঘটনায় সংশ্লিষ্টদের সাক্ষ্য গ্রহন, আলামত দেখা, ঘটনাস্থল সরেজমিনে দেখা, এ ঘটনায় দায়েরকৃত ৪টি মামলার সঠিকতা নির্ণয়, এ ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট জেলে থাকা ব্যক্তিদের বক্তব্য নেওয়া, পাওয়া তথ্য পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে যাচাই, এ ঘটনায় দায়েরকৃত ৪টি মামলার আসামীরা রিমান্ডে থাকায় সময় একটু বেশি লাগায় ২য় দফে কমিটির এই সময় বাড়ানো হয়েছে।

একজন ফৌজদারি অপরাধ বিশেষজ্ঞ তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সময় বাড়ানোকে অত্যন্ত যৌক্তিক ও বাস্তবতাসম্পন্ন উল্লেখ করে বলেছেন, তদন্ত কমিটি এখন একটি পরিপূর্ণ, ঘটনার উৎস ও কারণ এবং ভবিষ্যতে এধরনের ঘটনা প্রতিরোধে পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে একটি অর্থবহ প্রতিবেদন দাখিল করতে পারবেন। তার মতে, স্বল্প সময়ে তাড়াহুড়ো করে তদন্ত করে প্রতিবেদন তৈরি করলে তা ত্রুটিপূর্ণ থাকার আশংকা বেশি।

৪ সদস্য বিশিষ্ট এই উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, লে. কর্নেল মোহাম্মদ সাজ্জাদ, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম এন্ড অপারেসন্স) মোঃ জাকির হোসেন, কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহা. শাজাহান আলি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •