শাহেদ মিজান, সিবিএন:

নিহত মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান ও তার সহযোগীদের জব্দ করা সামগ্রী নিজেদের হেফাজতে রাখতে পুলিশের করা একটি আবেদন খারিজ দিয়েছে আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার রামু থানা পুলিশ এই আবেদন করলে শুনানী শেষে তা খারিজ করে দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হেলাল উদ্দীন। পুলিশের এই আমলী আবেদন খারিজ করে সামগ্রীগুলো র‌্যাবের কাছে হস্তান্তরের আদেশ বহাল রাখেন।
শুনানী শেষে আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত র‌্যাব ১৫ এর এএসপি বিমান চন্দ্র কর্মকার সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।
তিনি জানান, গত বুধবার র‌্যাবের তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে নিহত সিনহার সহযোগী শিপ্রা দেব নাথকে আসামী করে রামু থানা পুলিশ কর্তৃক জব্দ করা সিনহা ও তার সহযোগীদের হার্ডডিস্কসহ ২৯ টি সামগ্রী র‌্যাবকে হস্তান্তর করতে আদেশ দেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালত। কিন্তু সামগ্রীগুলো নিজেদের হেফাজতে রাখতে আবেদন করেন রামু পুলিশ। তবে আবেদনটি খারিজ করে পূর্বের আদেশ বহাল রাখেন আদালত। ফলে সামগ্রী হস্তগত করতে র‌্যাবের আর কোনো আইনী বাধা রইল।

অন্যদিকে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানান, সাত দিনের রিমান্ড শেষে মেজর (অব.) সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার সাত আসামীকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাদের জন্য পুন: রিমান্ড আবেদন করা হয়নি।

একই কথা জানিয়েছেন কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক প্রদীপ কুমার দাশ। তিনিও সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, র‌্যাব সাত আসামীর পুন: রিমান্ড চায়নি। তাই আদালতের অনুমতি সাপেক্ষে আসামীদের কারাগারে পাঠানো হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •