সিবিএন বিশ্ব ডেস্ক :

অবরুদ্ধ কাশ্মীরের বারমুল্লা জেলায় সোমবারের সংঘর্ষে নিরাপত্তাবাহীনীর তিন সদস্য ও আজাদীকামী লস্কর-ই তৈয়্যাবা (এলইটি)-র তিন যোদ্ধা নিহত হবার পর রাতের অন্ধকারে উত্তর কাশ্মীরে আর এক জেলা কুলগ্রামে নতুন একদফা হামলায় একজন সিআরপিএফ অফিসার গুরুতর আহত হয়েছে।

পুলিশকে উদ্ধৃত করে গ্রেটার কাশ্মীর পত্রিকা আজ সকালে এ খবর জানিয়েছে। পুলিশ বলেছে, সশস্ত্র আক্রমনকারীরা কুলগ্রাম জেলার নেহাম গ্রামে অবস্থিত প্যারা মিলিটারী ফোর্স সিআরপিএফ-১৮ ব্যাটালিয়নের একটি ক্যাম্পে আকস্মিকভাবে ব্যাপক গুলি বর্ষন শুরু করে। সিআরএফ পাল্টা গুলি চালালে আক্রমনকারীরা দ্রুত সটকে পড়ে । এ হামলায় এস সুকুমার নামের একজন এসিস্ট্যান্ট সাব-ইনসপেক্টর পায়ে গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

এ হামলার পরপরই ঘটনাস্থলে নিরাপত্তা বাহিনীর আতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করে পুরো এলাকা ঘেরাও করে তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে ।

দ্বিতীয় দিনের তল্লাশি চলছে বারমুল্লায়

ওদিকে বারমুল্লা জেলার ক্রেরী এলাকায় আজ ভোরের আলো দেখা দেবার পরপরই দ্বিতীয় দিনের জন্য অভিযান শুরু করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। সেখানে আজকেও প্রচুর গোলাগুলির শব্দ শোনা গেছে বলে কাশ্মীরি মিডিয়া খবর দিয়েছে।

উল্লেখ্য, গতকাল (সোমবার) সকালে এ এলাকায় পুলিশের একটি চেকপোষ্টে এলইটি যোদ্ধাদের অতর্কিত হামলায় একজন স্পেশাল পুলিশ অফিসার ঘটনাস্থলে নিহত হয় এবং সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স (সিআরপিএফ) –এর দু’জন সদস্য আহত হয়ে হাসপাতালে মারা যায়।

তাৎক্ষনিকভাবে নিরাপত্তা বাহিনী এলাকাটি ঘিরে ফেলে এবং অতিরিক্ত ফোর্স মোতায়েন করে তল্লাশি অভিযান শুরু করে। বিকেল নাগাদ আর একদফা গোলাগুলিতে পড়ে একজন সেনা সদস্য গুরুতর আহত হয়েছে।

পরে সোমবার সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করে ন জম্মু কাশ্মীর পুলিশের ডিজি দিলবাগ সিং জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে তিনজন এলইটি সদস্যও নিহত হয়েছে । তাদের মধ্যে একজন এলইটি’র শীর্ষ স্থানীয় কমান্ডার সাজাদ হায়দার । সে স্থানীয় কাশমীরি যুবকদের যোদ্ধাদলে রিক্রুট করার কাজে নিয়োজিত ছিল।

উল্লেখ্য, চারদিন আগে আগে গত শুক্রবার শ্রীনগরের উপকন্ঠে নওগাম এলাকায় টহল পুলিশের ওপর এক হামলায় দু’জন পুলিশ সদস্য নিহত ও অপর একজন আহত হয়।

অবমাননাকর ভিডিও প্রচারে জড়িত তিনজন গ্রেপ্তার

ওদিকে ইসলামের নবী হজরত মুহামমদ (স: ) নিয়ে অবমানাকর ভিডিও প্রচারের বিরুদ্ধে কাশ্মীরের মুসলমানদের ব্যাপক প্রতিবাদের মুখে রোহিত শর্মা নামের একজন হিন্দু যুবককে গতকাল আটক করা হয়েছে।

এ অবমাননাকর ভিডিও প্রচারের বিরুদ্ধে মুসলমনদের মধ্যে সৃষ্ট তীব্র ক্ষোভ ঠেকাতে কারফিউ জারী করা হলেও কয়েকটি ইসলাসী সংগঠনের ডাকে গত দু’দিন বিভিন্ন এলাকায় প্রতিবাদী কাশ্মীরবাসী মুসলামানগন ঘরের বাইরে এসে রাস্তায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে।

জম্মু পুলিশের আইজি মুকেশ সিং জানিয়েছেন, ধর্ম অবমাননার অভিযেগে দায়ের করা এক মমলায় রোহিত শর্মাকে গতকাল আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় আগের দিন রোববার আরো দু’জনকে আটক করা হয়।

ইতোমধ্যে শ্রী নগরের একজন বাসিন্দা ইমতিয়াজ রশিদ চিসতি নওহাট্টা থানায় ব্লাসফেমী আইনে একটি মামলা দায়ের করেছে।

এ ছাড়া, ইসলামের প্রথম যুগের খলিফা আমিরুল মুমিনিন হজরত উমর ফারুক (রাআ) এর উরস পালন উপলক্ষ্যে কাশ্মীরে মুসলমানদের গুরুত্বপূর্ন ধর্মীয় স্থান আসারে শরীফ দরগায় হযরতবাল সহ অন্যান্য মসজিদ ও মাজারে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন ন্যাশনাল কনফারেন্স প্রেসিডেন্ট ফারুক আবদুল্লাহ।

এর আগে গত রোববার থেকে স্বাস্থ্য বিধি পালন করে মসজিদ মাজারে সমাশের অনুমতি দিয়েছে কাশ্মীরে সরকারী প্রশাসন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •