“কক্স টুডে” একটি অনলাইন পোর্টালসহ কয়েকটি গণমাধ্যামে “শহরের পেতা সওদাগরপাডায় ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষ সংবাদ” শীর্ষক সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। উক্ত শিরোনামে সংবাদটিতে আমাকে জড়ানো সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। যা শুধু মাত্র শাক দিয়ে মাছ ধরার অপচেষ্টা।

উক্ত সংবাদটি নিয়ে আমি প্রতিবাদকারীর বক্তব্য হলো, স্থানীয় কিছু বিষয়কে কেন্দ্র করে আসামীদের সাথে আমাদের পূর্ব শত্রুতা বিরাজমান ছিলো। গত শুক্রুবার (১৪ আগষ্ট) আমার নিকট আত্নীয় নেজাম উদ্দিন ফুটবল খেলে বাড়ি ফেরার পথে, এলাকায় আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টকে কেন্দ্র করে আসামীদের সাথে কথাকাটাকাটি হয় । তবে এক পর্যায়ে পূর্ব শ্রুতার আক্রোশে মৃত জহির আহমদ এর ছেলে সাইফুল ইসলাম এর নেতৃত্বে ইরফান উদ্দিন, সুলতান আহমদ, দেলায়ার হোসেন, এবং নুরুল আবছারসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজন সংঘবদ্ধ হয়ে অতর্কিত অবস্থায় নেজাম উদ্দিনকে আমার দোকানের সামনে দা, ছোরা, লোহার রাড, ও হাতুড়ি দিয়ে বেদড়ক মারতে শুরু করে। এতে বাম চোখসহ শরিরের বিভিন্ন স্থান থেতলে কাটা জখম করে ফেলে। ওসময় একটি মোবাইল ও নগট টাকাও নিয়ে ফেলে। পরে নেজামের শোর চিৎকারে আমিসহ আশপাশ লোকজন উদ্ধারপূর্বক দ্রুত কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনিয়া চিকিৎসার ব্যবস্থা করি। কিন্তু দুঃখের বিষয় নেজাম উদ্দিন আমার আত্নিয় হওয়াতে আসামিরা আমার বিরুদ্ধে সাংবাদিক ভাইদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে কু-রুচিপূর্ণ ও মনগড়া একটি সংবাদ প্রচার করে। শুধু তা নই, মিথ্যা সংবাদটিতে আমাকে সন্ত্রাসী ও ইয়াবা কারবারি হিসেবে উল্লেখ করে। আমি হলফ করে বলছি আমার জীবনে ইয়াবা কি তা চোখে দেখিনি। শুধুমাত্র ইয়াবার বিষয়টি স্পর্শকাতর হওয়াতে আমাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সামাজিকভাবে হেয় করার তাদের একমাত্র নিল নকশা। যা প্রকৃত ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করার শাক দিয়ে মাছ ঢাকার অপচেষ্টা। আমি প্রায় ১০ বছর ধরে এলাকায় একটি মূদির দোকান ও গ্যাসের ডিলাার পরিচালনা করে আসছি। তবে আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি উল্লেখিত আসামী ও তাদের আনেক আত্নিয়স্বজন চিহ্নিত ইয়াবা কারবারি যা এলাকায় হাত তোলা জনশ্রুতি রয়েছে।

তাই সাংবাদিক ভাই ও সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আমার বিনীত অনুরোধ আপনারা বস্তু নিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করুণ। এতে দেশ-সমাজ উপকৃত হবে। না হয় আপনাদের একটি মিথ্যা সংবাদে দেশের যুব সমাজ বিপদগ্রস্তের দিকে পথিত হবে। পাশাপাশি আমাকে জড়িয়ে যে মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করেছিলো এতে কাউকে ভিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি। আর উল্লেখিত ব্যক্তিদের আসামী করে আমরা থানায় একটি এজাহারও দায়ের করেছি।

প্রতিবাদকারী
নাছির উদ্দিন
৬নং ওয়ার্ড পেতাসওদাগর পাড়া।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •