সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
গত ১০ আগস্ট কক্সবাজার সদরের ঝিলংজার খরুলিয়া বাজারে গণপিটুনিতে মাদক ব্যবসায়ী নবী হোসেন নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ৯নং ওয়ার্ডের সদস্য শরিফ উদ্দিনকে আসামি করায় ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়।
দাবী ওঠেছে, মামলা থেকে মেম্বার শরিফ উদ্দিনকে অব্যাহতি প্রদানের।
স্থানীয়রা বলছে, মাদক, সন্ত্রাসসহ যাবতীয় অপরাধকর্ম নির্মূলে শরিফ উদ্দিনের ভূমিকা প্রশংসনীয়।
তার অগ্রযাত্রাকে থামিয়ে দিতে কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তাকে মামলায় আসামি করিয়েছে।
প্রকৃতপক্ষে ঘটনায় কারা জড়িত তা তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের কাছে আহ্বান জানিয়েছে স্থানীয়রা।
সেই সাথে মেম্বার শরিফ উদ্দিনকে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা থেকে অব্যাহতি প্রদানের দাবি জানিয়েছে।
৯ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিবৃতি প্রদানকারীরা হলেনঃ
সিকদার পাড়ার মুহাম্মদ হোছাইন, মুঈন উদ্দীন, সুলতান আহমদ, সাইফুল, ফজলুর রহমান, হাবীব আহমদ, মো:অলি উল্লাহ, হামিদুল হক, আকতার হোছন, ফরিদুল আলম, ওমর ফারুক, জনু, ইউনুচ, আবিদ, আরশদ, জামাল হোসন, রশিদ আহমদ, মাওলানা হাবীব আহমদ, সালামত উল্লাহ, মোবারক, আব্দুল মাবুদ, আব্দুল খালেক জুনাইদ, মেহের আলী পাড়ার গুরা মিয়া, গিয়াস উদ্দীন, রমজান আলী, মকবুল আহমদ, সলামত উল্লাহ, খামার পাড়ার ইসমাইল, নুরু, জাফর আলম, জয়নাল, আব্দুর রহমান, আব্দুর রহিম, বড়ুয়া পাড়ার বিনা বড়ুয়া, অনঙ্গ বড়ুয়া, সুনিল বড়ুয়া, প্রদীপ বড়ুয়া, সংকীন বড়ুয়া তুসার, ডেইঙ্গা পাড়ার নুরুল হক, মেহের আলী, আব্দুর রহমান, নাজির হোসন, মাওলানা আব্দুস সালাম, নাসির, মুহাম্মদ হোসন, আজিজ,
মাস্টার পাড়ার মো:জহিরুল হক, আল আমিন, মুহাম্মদ মোস্তফা, নুরুল ইসলাম, ফরিদুল আলম, জামাল, মামুন, ইরফান, আজিজুল হক, নুরুল হক, জসিম উদ্দীন, জালালুর রসিদ, সুতার চরের সহিদুল ইসলাম, এনামুল হক, আলি আহমদ, ইলিয়াছ মিয়া, ফরিদুল আলম, মুহাম্মদ হোসন, রসিদ আহমদ, মিজান, মুন্সির বিলের মোরশেদ, শামসুল আলম, নেওয়াজ শরিফ, নুরুল আমিন, আলম সওদাগর, আমান, গিয়াস উদ্দীন, আব্দুল্লাহ, আবু তাহের, নুরুল কবির জসিম উদ্দীন, ইউনুস, হুমায়ুন, সামসুল হুদা।