প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

আশেক উল্লাহ রফিক এমপি বলেছেন, আগষ্ট মাস বাঙ্গালীর শোকের মাস। ১৫ আগষ্ট জাতির জনককে সপরিবারে হত্যার পর তৎকালীন যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মণিকেও হত্যা করা হয়েছে। বিদেশে থাকায় ভাগ্যক্রমে বেঁচে যাওয়া তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনাকে ২১ আগষ্ট হত্যা করতে চেয়েছিল সেই একই ঘাতক চক্রের দোষররা। তিনি গতকাল বেলা ১১টায় মহেশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে মহেশখালী উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস ও ২১ আগষ্টের কর্মসূচী যথাযত মর্যদায় পালন করার লক্ষ্যে এক প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এ কথা বলেন। উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজেদুল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সদস্য দেলোয়ার হোসেন, পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক নেওয়াজ কামাল, মাতারবাড়ি যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ কাশেম ,শাপলাপুর যুবলীগের সভাপতি সামিদুল ইসলাম, ছোট মহেশখালী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হেফায়ত উল্লাহ, কালারমারছড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি হাসান আরিফ, হোয়ানক ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান ,বড় মহেশখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক বেলাল হোসেন সাধারন, বড় মহেশখালী ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ শাহজাহান, যুবলীগ নেতা শামীমসহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ। উক্ত বিশেষ বর্ধিত সভায় বিভিন্ন কর্মসূচি গৃহীত হয়। কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যদায় পালন, ২২শে আগষ্ট উপজেলা যুবলীগ এর আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ইউনিয়ন পর্যায়ে খতমে কোরান ও দোয়া মাহফিলের সিদ্বান্ত গৃহিত হয়।