মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

টেকনাফ মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল ফয়সল যোগদান করেছেন। রোববার ৯ আগস্ট বিকেল ৪ টার দিকে ভারপ্রাপ্ত ওসি এবিএমএস দোহা থেকে তিনি দায়িত্ব বুঝে নেন। তার আগে একইদিন সকালে তিনি কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বিপিএম বার এর কাছে যোগদান করেন। বিষয়টি টেকনাফ মডেল থানার নতুন অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মো. আবুল ফয়সল সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন। তিনি বরখাস্ত হওয়া সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশের স্থলাভিষিক্ত হলেন।

মো. আবুল ফয়সল এর আগে ২০১৮ সালের ৫ নভেম্বর থেকে ২০২০ সালের ৬ আগস্ট পর্যন্ত কুমিল্লা জেলার চান্দিনা থানায় ওসি (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার কসবা উপজেলার পানিয়ারূপ গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফ এর সন্তান। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে স্নাতক পাসের পর উপপরিদর্শক (এসআই) হিসেবে ১৯৯৩ সালে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন মো. আবুল ফয়সল। ২০০৯ সালে তিনি পুলিশ পরিদর্শক হিসেবে পদোন্নতি লাভের পর ফেনীর দাগনভূইয়া থানা, কুমিল্লার দাউদকান্দি, তিতাস, হোমনা ও চৌদ্দগ্রাম এবং সর্বশেষ চান্দিনা থানায় ওসি হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন। তার শ্বশুর বাড়ি কুমিল্লা জেলায়। তিনি ২ মেয়ে ও ১ কন্যা সন্তানের জনক।

টেকনাফ মডেল থানার নতুন ওসি হিসাবে যোগদানের পর মো. আবুল ফয়সল সিবিএন-কে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত মাদকের বিরুদ্ধে ‘শূন্য সহিষ্ণুতা’ নীতি অবলম্বন করে মাদক বিরোধী চলমান অভিযান আরো জোরদার করা হবে। টেকনাফ মডেল থানা শুধুমাত্র মাদক ব্যবসায়ী, মাদকের সাথে সম্পৃক্ত ব্যক্তি, অপরাধী ছাড়া অন্য সবার জন্য উম্মুক্ত থাকবে। তিনি আরো জানান, সংবাদ সংগ্রহের জন্য গণমাধ্যমকর্মীদের গুরুত্বের সাথে অগ্রাধিকার দিয়ে তথ্য আদান প্রদান করা হবে ইনশাআল্লাহ। তিনি তাঁর দায়িত্ব পালনে সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রসঙ্গত, টেকনাফ মডেল থানার সাবেক ওসি, বরখাস্ত হওয়া প্রদীপ কুমার দাশ গত ৩১ জুলাই পুলিশের গুলিতে নিহত হওয়া মেজর (অবঃ) সিনহা মোঃ রাশেদ হত্যাকান্ড মামলার আসামি হয়ে এখন জেল হাজতে রয়েছেন।