সিবিএন স্পোর্টস ডেস্কঃ
বিশ্বকাপ ২০২২ ও এশিয়ান কাপ ২০২৩ এর বাছাই পর্বের খেলার আগে ক্যাম্প শুরু করতে গিয়েই বিপাকে বাংলাদেশের ফুটবল। একের পর এক করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন ৩৬ জনের প্রাথমিক দলে থাকা খেলোয়াড়রা।

গতকাল ১৩ ফুটবলারের করোনা পরীক্ষা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাতে ৪ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

গতকালকের চারজন ছিলেন বিশ্বনাথ ঘোষ, এম এস বাবলু, সুমন রেজা ও নাজমুল ইসলাম। তাদের পর আজ ৬ই আগস্ট আক্রান্ত আরোও পাঁচ জন। তারা হলেন আবাহনীর সোহেল রানা, টুটুল হোসেন বাদশা, গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল, বাকি দুইজন কক্সবাজারের কৃতি সন্তান মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও শুশান্ত ত্রিপুরা।

আগামী ৭ তারিখ থেকে শুরু হবে বাছাই পর্বের অনুশীলন। তার আগে খেলোয়াড়দের পালাক্রমে করোনা পরীক্ষার উদ্যোগ নিয়েছে বাফুফে। আগামীকাল শুক্রবার আরও ১২ ফুটবলারের করোনা পরীক্ষা করা হবে।

করোনায় আক্রান্ত ৯ জন আর চোট পড়া তিন জন মতিন মিয়া, মাশুক মিয়া জনি ও আতিকুর রহমান ফাহাদ যোগ হওয়ায় অনুশীলন ক্যাম্পই এখন হুমকির মুখে।

তাছাড়া অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া ও তারিক কাজী দলের সঙ্গে যোগ দেবেন আরও কিছু দিন পরে। এই অবস্থায় যদি দ্বিতীয়বার পরীক্ষায়ও করোনা পজিটিভ আসে তবে দলে নতুন সংযোজনের আভাস দিয়েছেন ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ।

‘যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তাদের সুযোগ শেষ হয়ে যায়নি। তবে ক্যাম্পের জন্য দরকার হলে নতুন করে খেলোয়াড় নেওয়া হবে। সে ব্যাপারে আগামী দুই-চারদিনের ভেতরই সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •