মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজারের শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ের সাবেক অতিরিক্ত আরআরআরসি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান (৬৪৫৮) সেনাবাহিনী থেকে স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়া মেজর সিনহা মো: রাশেদ খান হত্যাকান্ডের তদন্ত কমিটির আহবায়ক হয়েছেন। মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বিসিএস (প্রশাসন) ১৭ তম ব্যাচের একজন কর্মকর্তা। তিনি উপসচিব থাকা অবস্থায় ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে কক্সবাজারের শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ের অতিরিক্ত আরআরআরসি হিসাবে নিয়োগ পান। অতিরিক্ত আরআরআরসি হিসাবে কর্মরত থাকা অবস্থায় ২০১৯ সালের জুনে তিনি সরকারের যুগ্ম সচিব হিসাবে পদোন্নতি লাভ করেন। এর পর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হয়। চলতি বছরের ২৬ এপ্রিল তিনি বর্তমান কর্মস্থলে যোগ দেন। প্রায় আড়াই বছর মোহাম্মদ মিজানুর রহমান অতিরিক্ত আরআরআরসি পদে দায়িত্ব পালন করেন।

টেকনাফ-কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ রোডে টেকনাফের বাহারছরা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের সামনে গত ৩১ জুলাই রাত্রে নিহত সেনাবাহিনী থেকে স্বেচ্ছায় অবসরে যাওয়া মেজর সিনহা মো: রাশেদ খান হত্যাকান্ডের তদন্তের জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। গত ২ আগস্ট স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) ও কক্সবাজারের সাবেক অতিরিক্ত আরআরআরসি মোহাম্মদ মিজানুর রহমানকে আহবায়ক করে ৪ সদস্য এ কমিটি গঠন করে দেওয়া হয়। উচ্চ পর্যায়ের এই কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন-লে: কর্নেল সাজ্জাদ, চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম এন্ড অপারেশন্স) মোঃ জাকির হোসেন এবং কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোহাঃ শাজাহান আলি। কমিটি মঙ্গলবার ৪ আগস্ট থেকে কক্সবাজারে সরেজমিনে তদন্তে নামছেন বলে বিশ্বস্ত সুত্র জানিয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •