আমার সফলতা উপজেলাবাসীর জন্য, ব্যর্থতা শুধু আমার জন্য : নোমান হোসেন

আমি  প্রতিশ্রুতি দিয়ে কোন কিছু শুরু করতে চাইনা : শাহিনা সুলতানা


চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ নোমান হোসেনের বিদায় ও নবাগত ইউএনও শাহিনা সুলতানা’র বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) দুপুর ১২টায় উপজেলার শিকলবাহাস্থ রিভারভিউ কমিউনিটি সেন্টারের হলরুমে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন উপজেলা পরিষদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফারুক চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস-চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুকান্ত সাহা, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল শুক্কুর, উপজেলা প্রকৌশলী জয়শ্রী দে, বড়উঠান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ দিদারুল আলম, শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. জাহাঙ্গীর আলম, চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী ছাবের আহমদ, জুলধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিক আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা এম এন ইসলামসহ প্রমূখ।

বিদায়ী অতিথির বক্তব্যে ইউএনও মো. নোমান হোসেন বলেন, ‘আমার সফলতা সমগ্র উপজেলাবাসীর জন্য আর ব্যর্থতা শুধু  আমার। আমি চেষ্টা করেছি সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করার। ৫ মাসে সবার সহযোগিতায় তা করার চেষ্টা করেছি মাত্র। আমার ভুলভ্রান্তি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। এই ৫ মাসে কর্ণফুলী উপজেলাবাসীর সহযোগিতায় আমি সিক্ত হয়েছি। নতুন উপজেলা হিসেবে এখানে অনেক কিছুর অভাব রয়েছে। করোনাকালে অনেক ঝুঁকি নিয়ে আমাকে কাজ করতে হয়েছে। তবে আশাকরি একদিন এই কর্ণফুলী উপজেলা চট্টগ্রামের মডেল উপজেলায় পরিণত হবে।’

বরণীয় অতিথির বক্তব্যে নবাগত ইউএনও শাহিনা সুলতানা বলেন, ‘আমাদের বিদায়ী ইউএনও সুভাগ্যবানদের একজন। যিনি সকলের শুভকামনা ও ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে পদোন্নতিজনিত কারণে বিদায় নিয়ে যাচ্ছেন। আমি উনার মঙ্গল কামনা করছি। এর আগে আমি মন্ত্রনালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ে কাজ করেছি। এবারই প্রথম মাঠে কাজ করতে আপনাদের উপজেলায় এসেছি। আমরা সকলে একটি পরিবার হিসেবে কাজ করব। পরিবারের সদস্যরা যদি সহযোগিতা না করে তবে শর্ত দিয়ে কিছু করা সম্ভব হয় না।’

তিনি আরো বলেন, ‘সকলের সহযোগিতা নিয়ে কর্ণফুলী উপজেলাকে একটি আধুনিক ও উন্নত উপজেলায় গড়ে তোলার সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে। আমরা যাতে এই কর্ণফুলী উপজেলাকে চট্টগ্রাম বিভাগের মধ্যে আদর্শ উপজেলা হিসেবে গড়ে তোলতে পারি। সে চেষ্টা থাকবে আমাদের সকলের প্রধান ও অন্যতম লক্ষ্য। আমি আসলে প্রতিশ্রুতি দিয়ে কোন কিছু শুরু করতে চাইনা। আমি আমার নিজের বিবেকের কাছে পরিস্কার থাকতে চাই। যাতে অন্তত এই উপজেলায় ভালো কাজের মধ্যে থাকতে পারি। যাতে আমি চলে যাওয়ার সময়ও আপনারা আমাকে মনে রাখেন।’

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফারুক চৌধুরী বলেন, ‘বিগত সময়ে অনেক ইউএনও কর্ণফুলীতে কাজ করেছেন। তবে সবচেয়ে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করেছেন এডিসি হিসেবে সদ্য পদোন্নতি পাওয়া বিদায়ী ইউএনও মো. নোমান হোসেন। তিনি আমাদের অভিভাবক মাননীয় ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপির নির্দেশনীয় সব সময় ভাল কিছু করার চেষ্টা করেছেন। করোনাকালে নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মাঠে ছিলেন সব সময়। আমরা উনার আগামীর পথে সুস্বাস্থ্য ও মঙ্গল কামনা করছি।’

ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের প্রয়াত নেতা আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু ভাইয়ের স্বপ্ন ছিল অবহেলিত কর্ণফুলী উপজেলা করবেন। তাঁর সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করলেন তাঁরই সুপুত্র আমাদের প্রিয় নেতা মাননীয় ভূমিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। আমরা চাইবো আমাদের উপজেলাকে মডেল উপজেলা হিসেবে পরিনত করতে। আশা করি নতুন ইউএনও সবাইকে নিয়ে মিলেমিশে কাজ করবেন।’

এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নিবার্চন কর্মকর্তা আব্দুল শুক্কুর, ইউএনও অফিসের সিও দিপু চাকমা, অফিস সহকারি ইমতিয়াজ, এবং মুক্তিযোদ্ধা এন ইসলাম ইসলাম।
বক্তারা সততা নিষ্ঠা ও কর্মদক্ষতার জন্য বিদায়ী ইউএনও মোঃ নোমান হোসেনের ভূয়সি প্রশংসা করেন।

প্রশাসনের একজন সৎ ও কর্মদক্ষ কর্মকর্তাকে বিদায় জানাতে প্রশাসনের সকল বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারী, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক প্রতিনিধি, সাংবাদিক, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে এ অনুষ্ঠানটি প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছিল।

আলোচনা সভা শেষে বিদায়ী ও নবাগত ইউএনও’দ্বয়কে ফুলেল শুভেচ্ছা, সম্মাননা স্বারক ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা তানিয়া আলম।

প্রসঙ্গত, কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. নোমান হোসেন পদোন্নতি পেয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিসি) হিসেবে নোয়াখালী জেলায় পদায়িত হন। ১৬ জুলাই চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের এক আদেশে শাহিনা সুলতানাকে কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে পদায়ন করা হয়েছে। তিনি ২৮ তম বিসিএস’র ক্যাডার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •