আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ের তিনটি এলাকার বস্তিগুলোর অর্ধেকেরও বেশি বাসিন্দা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি পরীক্ষায় এই আক্রান্তদের পজিটিভ ফল পাওয়া গেছে বলে নতুন এক জরিপে উঠে এসেছে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে মুম্বাইয়ের ঘনবসতিপূর্ণ বস্তিগুলোর ৭ হাজার মানুষকে বিক্ষিপ্তভাবে বেছে নিয়ে জরিপ পরিচালনা করা হয়। জরিপে সেখানকার বাসিন্দাদের অর্ধেকের বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে ফল পাওয়া যায়। কিন্তু একই এলাকায় বস্তির বাইরে বসবাসকারীদের মধ্যে করোনা সংক্রমণের হার মাত্র ১৬ শতাংশ।

মুম্বাইয়ে ২৮ জুলাই পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ১০ হাজার এবং মারা গেছেন ৬ হাজার ১৮৭ জন। জরিপটি পরিচালনা করেছে সিটি পৌর কর্তৃপক্ষ, সরকারি থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক নীতি আয়োগ ও টাটা ইন্সটিটিউট অফ ফান্ডামেন্টাল রিসার্চ।

এতে দেখা যায়, মুম্বাইয়ের চেম্বুর, মাতুঙ্গা এবং দাহিসার এলাকার ৫৭ শতাংশ মানুষ নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই গবেষণার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট বিজ্ঞানীরা বিবিসিকে বলেছেন, ভারতে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত শহরগুলোর একটিতে সংক্রমণের বিস্তার সম্পর্কে গবেষণার এই ফল বেশ কয়েকটি বিষয় তুলে ধরেছে।

মুম্বাইয়ের পশ্চিমাঞ্চল, পূর্বাঞ্চল এবং মধ্যাঞ্চলের ওই তিনটি এলাকায় প্রায় ১৫ লাখ মানুষের বসবাস। গবেষকরা বলেছেন, শহরের বস্তি এলাকাগুলোতে করোনার বিস্তার সম্পর্কে আগে যে ধারণা করা হতো বর্তমানে তার চেয়ে আরও ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। মুম্বাইয়ের এক কোটি ২৫ লাখ মানুষের অর্ধেকেরও বেশি বসবাস করেন শহরের বস্তিগুলোতে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •