বলরাম দাশ অনুপম :

চকরিয়ার পশ্চিম কৈয়ারবিলে বসতঘরের দেয়ালের মাটি কাটতে বাধা দেয়ায় হামলার শিকার হয়েছে একটি নিরীহ সংখ্যালঘু পরিবার। হামলায় ওই পরিবারের মহিলাসহ ৪ জন গুরুতর আহত হয়। শুধু তাই নয় হামলাকারীরা ওই নিরীহ পরিবারের আসবাবপত্র ভাংচুর ও স্বর্ণালংকারসহ বাড়ির মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ঘটনাটি গত ১৯ জুলাই বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে পশ্চিম কৈয়ারবিল ভরন্যার চর এলাকায় ঘটে। এই ঘটনায় হামলার শিকার পরিবারের পক্ষে ওই এলাকার মৃত অন্ন চরণ দাশের ছেলে জগদীশ দাশ বাদী হয়ে চকরিয়া থানায় এজাহার দায়ের করেছে।

এজাহার সূত্রে জানা যায়-একই এলাকার মিনহাজ উদ্দিন, বাদশা, ছুট্টো মিয়া, সাহেদের নেতৃত্বে একদল সন্তাসী জগদীশের বসতভিটার দেয়াল থেকে মাটি কেটে নিলে তাতে বাধা দেয় তার ছেলে নির্মল দাশ। এসময় হামলাকারীরা নির্মলকে মারধর করে। এসময় নির্মলকে উদ্ধার করতে এসে হামলার শিকার হন তার মা নিলু বালা দাশ, ভাই নারায়ন দাশ ও আপন দুলাল। শুধু তাই নয় হামলাকারীরা তাদের বসতঘরের জানালা, দরজার আয়না ভাংচুর করে ২৫ হাজার টাকার ক্ষতি করে। আহতদের চিৎকারে পাশ্ববর্তীরা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা নিলু বালার গলায় থাকা ১ ভরি ৮ অানা ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ও ২০ হাজার আসবাবপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়। এজাহার দাতা জগদীশ দাশ অভিযোগ করে বলেন বর্তমানে তারা হামলাকারীদের হুমকিতে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •