মোস্তফা কামাল, ডুলাহাজারা থেকে:
আর ক’দিন পরেই কোরবানীর ঈদ। এই ঈদে মানুষের মূল আকর্ষণ হচ্ছে কোরবানীর গরু। সাদ আর সাধ্যের সমন্বয় ঘটিয়ে লোকজন পছন্দের পশু ক্রয় করে কোরবানী দিয়ে থাকেন। তাই এবারের ঈদুল আজাহা সামনে রেখে কক্সবাজারের চকরিয়ায় প্রায় ২৫ মন ওজনের একটি দেশী জাতের গরু বিক্রি করা হচ্ছে।
শুধু তাই নয়, স্থানীয়দের পক্ষ থেকে এই বিশাল দেহের গরুটিকে এবারের কোরবানীতে চকরিয়া উপজেলার সবচেয়ে বড় পশু হিসাবেও দাবী করা হচ্ছে। এই পোষা গরুটির মালিক উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের মালুমঘাট মিঠাছড়ি গ্রামের দুদু মিয়া। সে তাঁর এই গরুটির নাম রেখেছেন লাল বাহাদুর। প্রায় সাড়ে ৭ ফুট লম্বা ও ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি উচ্চতার বিশাল গরুটির বর্তমান বয়স প্রায় ৫ বছর। গরুটির অভিবাবক দুদুমিয়া জানান, গত চার বছর আগে তিনি এই দেশি জাতের গরুটি এক কৃষকের কাছ থেকে কিনেছেন। পরে কৃষি অফিসের পরামর্শ নিয়ে দীর্ঘ চার বছর ধরে গরুটি প্রাকৃতিক পরিবেশে লালন পালন করে বড় করেছেন। বর্তমানে গরুটির ওজন ২৫ মনের অধিক হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। স্থানীয় গরু ব্যবসায়ীদের মতে কোরবানীর সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম শহরের পশুর হাটে এই মাপের গরু গুলো ২০ থেকে ২২ লাখ টাকা বিক্রি করা যায়। কিন্তু দেশে করোনা ভাইরাসের এই মহামারীতে গরু নিয়ে শহরে যাওয়া দুদুমিয়ার পক্ষে মোটেও সম্ভব নয়। তাই তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাড়ি থেকেই গরুটি বিক্রি করে দেবেন। তবে তিনি অাশা করছেন তাঁর গরুটির দাম কম হলেও ৭ লাখ টাকায় বিক্রি করতে পারবেন। তাই অাগ্রহী ক্রেতাগণরা গরু মালিকের সাথে সরাসরি অথবা ০১৮৩৭-৬২৬৫৪৯, ০১৯৩৩-০৮৯১৪৬ এই নাম্বারে যোগাযোগ করতে পারবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •