আমি হাজী মকছুদ আলম, হোয়ানক আদর্শ বিদ্যাপীঠের সভাপতি। গত ২১ জুলাই সদ্য এমপিওভুক্ত এই বিদ্যালয়ের নতুন শ্রেণিকক্ষ ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়। ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফ, বিদ্যালয়ের সভাপতি হিসেবে আমি এবং সাবেক সভাপতি ও বর্তমান পিটিআই সদস্য আবুল কাশেম ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক গিয়াস উদ্দীন সেই ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট সেখানে আবুল কাশেমকে সভাপতি এবং আমাকে পিটিআই সদস্য বলে উল্লেখ করেন। বিদ্যালয়েরই একজন সাবেক শিক্ষক হয়ে গিয়াস উদ্দীনের এমন ভুলটি অগ্রহণযোগ্য। এই বিষয়ে আমি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাফর আলম ও বর্তমান পিটিআই সদস্য আবুল কাশেমের কাছে জানতেই চাইলে তারা বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নন বলে জানান। গিয়াস উদ্দীনের এমন ভুল তথ্য উপস্থাপন নিয়ে সংশ্লিষ্টসহ কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার অনুরোধ করছি।

এখানে উল্লেখ্য যে, এমপিওভুক্ত হওয়ার আগে আমি বিদ্যালয়ের পিটিআই সদস্য ছিলাম। পরবর্তী কমিটিতে মাননীয় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিকসহ বিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্টরা আমাকে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি হিসেবে মনোনিত করেছেন। আমি বর্তমানে বিদ্যালয়ের সভাপতির দায়িত্বটি অত্যন্ত মর্যাদা ও গুরুত্বের সাথে পালন করছি। একই সাথে আমি হোয়ানক ইউনিয়ন ৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, হোয়ানক টাইমবাজার বাজার বণিক সমিতির সভাপতি, টাইমবাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমবায় সমিতির সভাপতি, খোরশাপাড়া-ফকিরখালী পাড়া মহল্লা কমিটির সভাপতি, টাইমবাজার নূরানী মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি, হোয়ানক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি সদস্য হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করছি।

বিবৃতিদাতা
হাজী মকছুদ আলম
সভাপতি

হোয়ানক আদর্শ বিদ্যাপীঠ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •