মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা অর্ধশতে পৌঁছেছে।

 যারমধ্যে, কক্সবাজার সদর উপজেলায় ২৪ জন, রামু উপজেলায় ২ জন, চকরিয়া উপজেলায় ৬ জন, পেকুয়া উপজেলায় ১ জন, মহেশখালী উপজেলায় ১ জন, কুতুবদিয়া উপজেলায় ২ জন, উখিয়া উপজেলায় ৭ জন ও টেকনাফ উপজেলায় ৭ জন। অর্থাৎ আক্রান্ত, মৃত্যু কোন দিক থেকেই কক্সবাজারের মোট ৮ টি উপজেলার একটি উপজেলাও বাদ নেই।

গত ২১ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার জেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা মোট ৩১৮৭ জনে পৌঁছেছে। একই সময়ে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে করোনা ভাইরাস এর নমুনা টেস্ট করা হয়েছে মোট ২৩৮৪০ জনের।

৩১৮৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী নিয়ে কক্সবাজার জেলা সারা দেশের ৬৪ টি জেলার মধ্যে চতুর্থ নম্বরে অবস্থান করছে।

এদিকে, ২১ জুলাই পর্যন্ত কক্সবাজার সদর উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৫১৩ জন রোগী নিয়ে কক্সবাজার সদর উপজেলা শীর্ষে অবস্থান করছে। ৩৯৬ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে চকরিয়া উপজেলা দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে।৩৯৫ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে উখিয়া উপজেলা তৃতীয় শীর্ষ অবস্থানে রয়েছে। ২৮২ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে টেকনাফ উপজেলা চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে। ২৭০ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে রামু উপজেলা পঞ্চম অবস্থানে, ১৫৬ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী নিয়ে মহেশখালী উপজেলা ষষ্ঠ অবস্থানে, ১৩৬ জন করোনা রোগী নিয়ে পেকুয়া উপজেলা সপ্তম অবস্থানে এবং কুতুবদিয়া উপজেলা ৮৫ জন করোনা রোগী নিয়ে ৮টি উপজেলার মধ্যে সর্বনিম্মে অবস্থান করছে। তবে মাত্র প্রায় দেড় লক্ষ জনসংখ্যা অনুপাতে কুতুবদিয়া উপজেলায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা একেবারে কমও নয়।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত ম্যাপিং এর তথ্য অনুযায়ী, কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ৩১৮৭ জন রোগীর মধ্যে গত ১৯ জুলাই পর্যন্ত ২১৫৬ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। তারমধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলায় ৯০৬ জন, রামু উপজেলায় ১৬০ জন, চকরিয়া উপজেলায় ৩১৭ জন, পেকুয়া উপজেলায় ১০৮ জন, মহেশখালী উপজেলায় ১৪২ জন, কুতুবদিয়া উপজেলায় ৬২ জন, উখিয়া উপজেলায় ২২১ জন ও টেকনাফ উপজেলায় ২৪০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছেন।