আবুল কালাম, চট্টগ্রাম:
চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন (সিএমপি)পুলিশের কর্মরত ১২ জন এসআইকে একসাথে নিজেদের কর্মস্থল থেকে নগরীর বিভিন্ন থানায় বদলি করা হয়েছে।

রবিবার (১৯ জুলাই) চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন (সিএমপির) পুলিশের তিনটি জোন থকে ১২ এসআইকে অন্য জোনের ডিসি অফিসে সংযুক্ত করে বদলি করা হয়। সিএমপির উপ কমিশনার (সদর) আমীর জাফর এ অফিস আদেশ জারি করেন।

অফিস আদেশ থেকে জানা যায়, উত্তর বিভাগের পাঁচলাইশ থানার এসআই আব্দুল মোমিনকে পশ্চিম বিভাগে, বায়েজিদ থানার এসআই গোলাম মোহাম্মদ নাসিমকে দক্ষিণ বিভাগে, চান্দগাঁওয়ের এসআই সালাহ উদ্দিন খান নোমানকে দক্ষিণ বিভাগে বদলী করা হয়।

দক্ষিণ বিভাগের দক্ষিণ জোনের সড়রঘাট থানার এসআই তন্ময় ভটাচার্য্যকে উত্তর বিভাগে আর এসআই মোরশেদ আলমকে পশ্চিম বিভাগে, কোতোয়ালী থানার এসআই সজল কান্তি দাশ ও এসআই তারেকুজ্জামানকে উত্তর বিভাগে বদলী করা হয়েছে। বাকলিয়া থানার এসআই রেজুয়ানুল ইসলামকে পশ্চিম বিভাগে, এসআই এসএম জামাল উদ্দীনকে বন্দর বিভাগে বদলী করা হয়েছে। বদলী করা হয়।

এছাড়া পশ্চিম বিভাগের ডবলমুরিং থানার এসআই হাসানুজ্জামান রুমেলকে দক্ষিণ বিভাগে, হালিশহর থানার এসআই পলাশ চন্দ্র ঘোষকে দক্ষিণ বিভাগে, পাহাড়তলী থানার এসআই আব্দুল্লাহ আল মাসুদকে দক্ষিণ বিভাগে বদলী করা হয়।

সাম্প্রতি ডবলমুরিং থানাধীন আগ্রাবাদ এলাকায় থানা পুলিশের কথিত সিভিল টিমের অভিযানকে কেন্দ্র করে এক কিশোরের আত্মহত্যার ঘটনার পর দেশ জুড়ে আলোচিত হয় কথিত স্পেশাল ডিউটি আর সিভিল টিমের নাম৷ একাধিক সূত্র চট্টলা২৪ কে জানিয়েছে, সিএমপি কমিশনার মাহবুবর রহমান নিজেই স্ব-স্ব জোনের ডিসিদের মারফৎ থানা ভিত্তিক তালিকা তৈরী করে গতকাল এই বদলির আদেশ দেন৷

অনেকে সিভিল টিম পরিচালনা করাই যাবেনা মর্মে তথ্য পরিবেশন করলেও সিএমপি কমিশনার বলছেন, সার্বক্ষণিক সিভিল টিম পরিচালনার সুযোগ নেই। শুধু মাত্র জরুরি প্রয়োজনে সিনিয়র অফিসারদের অনুমতি নিয়ে আসামি ধরার কৌশল হিসেবে সিভিল টিম পরিচালনা করা যাবে।

ঢালাও বদলির কারণে প্রভাব পড়বে থানায় –কয়েক জন অসাধু পুলিশ সদস্যের কৃতকর্মের জন্য সিএমপি’র বেশীর ভাগ থানার বিশেষ টিমের ওপর দ্বায় চালানোর ফলে একযোগে ১২ অফিসারকে বদলী করা হলো৷ তবে এই ঢালাও বদলির খগড় এ বেশ কিছু চৌকশ অফিসারও অন্যত্র বদলি হয়ে গেলো৷ অথচ সেই কয়েকজন অফিসারের সাহসীকতা ও চৌকশ কর্মকান্ড থানা এলাকার আইন শৃংখলা রক্ষায় বলিষ্ঠ ভূমিকা রেখেছিলো৷ হঠাৎ তাদের শূন্যতা কয়েকটি থানায় অপরাধ দমনে বেশ বেগ পেতে হবে থানা পুলিশকে৷ নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, বেশ কিছু আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর মামলা দ্বায়িত্বে থাকা অফিসারের বদলীর কারণে সেই সকল মামলার তদন্তে কিংবা আসামী গ্রেফতারে কিছুটা বেগ পেতে হলেও সর্বদা বদলীর সম্ভাবনা মাথায় রাখতেই হয় কারণ এই পেশায় কেউ নির্দ্দিষ্ট থাবায় স্থায়ী নয় ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •