মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি :

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শত বার্ষিকী উপলক্ষে সারাদেশে ১ কোটি চারা বিতরণের অংশ হিসাবে বান্দরবানের লামা উপজেলার বিভিন্ন সরকারী-বেসরকারী দপ্তর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের মাঝেও বিনামূল্যে ২০ হাজার ৩২৫টি ফলদ বনজ গাছের চারা রোপন ও বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে লামা বন বিভাগের উদ্যোগে উপজেলা পরিষদের গেইট সংলগ্নে গাছের চারা রোপন ও শিক্ষার্থীদের হাতে গাছের চারা তুলে দিয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল। এ সময় নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি, পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা এস.এম কায়চার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুবল চাকমা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাহেদ উদ্দিন, সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা নূরে আলম হাফিজ, প্রকল্প বাস্তবয়ন কর্মকর্তা মো. মজনুর রহমান, মৎস্য কর্মকর্তা জয় বণিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ কার্যক্রম শুরুর সত্যতা নিশ্চিত করে লামা বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা নূরে আলম হাফিজ বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শত বার্ষিকী উপলক্ষে লামা উপজেলা বন ও পরিবেশ কমিটির অনুমোদনক্রমে ২০ হাজার ৩২৫টি গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে একইভাবে আলীকদম উপজেলায় ২০ হাজার ৩২৫টি ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় ২০ হাজার ৩২৫টি বিভিন্ন প্রজাতির ফলদ ও বনজ গাছের চারা বিতরণ করা হবে।

গাছের চারা বিতরণকালে উপস্থিত অতিথিরা বলেন, গাছ আমাদের পরম বন্ধু, গাছ গ্রিন হাউস প্রভাবকে প্রশমিত করে ও মাটিতে জৈবপদার্থ যোগ করে উর্বরতা বাড়ায়। মাটির স্বাস্থ্য সুরক্ষা করে; বহুমুখী খাদ্যের জোগান দেয়। বিশেষ করে দূষিত বাতাস শোষণ করে এর বিষাক্ততা থেকে জীব জগৎকে রক্ষা করে। পাশাপাশি ওষুধের উপাদান সরবরাহসহ জ্বালানি, খুঁটি ও গোখাদ্যের জোগান দেয়। প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রশমিত করে সৌন্দর্য বাড়ায় গাছ। তাই বেশি বেশি গাছ লাগানোর জন্য প্রত্যেকের প্রতি আহবান জানান অতিথিরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •