মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা পুলিশের সদস্য করোনায় পরলোকগত ছোটন দেব শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। কনস্টেবল ছোটন দেব মৃতদেহ ১৬ জুলাই বিকেল ৫ টার দিকে ঢাকা থেকে তার গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলার বাতাজুড়িতে কক্সবাজার জেলা পুলিশ, চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ থানা পুলিশের ব্যবস্থাপনায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বাতাজুড়ি রবীন্দ্র ঠাকুর বাড়ির পারিবারিক শ্মশানে সন্ধ্যা ৭ টা ৫ মিনিটের সময় কনস্টেবল ছোটন দেব এর শেষকৃত্যের কার্যক্রম শুরু হয়। কক্সবাজার জেলা পুলিশের বিশ্বস্ত সুত্র সিবিএন-কে এ তথ্য জানিয়েছেন।

শেষকৃত্যানুষ্ঠানে কক্সবাজার জেলা গোয়েন্দা শাখার পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) রুপন চন্দ্র দাস এর নেতৃত্বে একটি টিম সহ
চন্দনাইশ থানা পুলিশের সদস্যরা সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ভোরে ঢাকাস্থ রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে কক্সবাজার জেলা পুলিশ এর সদস্য ও ডিএসবি’র কম্পিউটার অপারেটর ছোটন দেব (২৯) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এই প্রথম কক্সবাজার জেলা পুলিশের একজন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করে। এছাড়া কক্সবাজার জেলা পুলিশের আরো ১৩৬ জন বিভিন্ন পদ মর্যাদার সদস্য গত ৪ মাসে নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নাগরিকদের মানবিক সেবা দিতে গিয়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

পরলোকগমনকৃত কক্সবাজার জেলা পুলিশের সদস্য কনস্টেবল ছোটন দেব চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার বাতাজুড়ি, ধামদর হাট এলাকার সাধন দেব এর পুত্র। কনস্টেবল ছোটন দেব সরকারি দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে গত ১০ জুন করোনা ‘পজিটিভ’ হন। পরে তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছিলো। গত ৬ দিন যাবৎ সে পুলিশ হাসপাতালের আইসিইউ’তে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। ছোটন দেব ২০১১ সালের ১৮ আগস্ট বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন।ছোটন দেব মৃত্যুকালে স্ত্রী, ১৪ মাস বয়সী শিশু কন্যা সহ অনেক আত্মীয় স্বজন রেখে যান।

কক্সবাজার জেলা পুলিশের কনস্টেবল ছোটন দেব সহ এ পর্যন্ত বাংলাদেশ পুলিশের ৫৩ জন করোনা ফ্রন্ট যুদ্ধের বীর সেনানী বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করলো। তারমধ্যে ক্সবাজার জেলা পুলিশের সদস্য ছোটন দেব ৫২ তম।

কোভিড যোদ্ধা ছোটন দেব এর পরলোকগমনে আইজিপি ড. বেনজির আহমদ, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ও পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন বিপিএম (বার) শোক প্রকাশ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •