আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
ব্রাজিলে এক মাসেরও কম সময়ে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। দেশটিতে সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছেই। এর মধ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

করোনা মহামারি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হওয়ায় দেশজুড়ে প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারোর প্রতি ক্ষোভ বাড়তে শুরু করেছে।

গত কয়েক সপ্তাহে প্রায় প্রতিদিনই ৪০ হাজার মানুষ প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। সরকারি হিসাব অনুযায়ী, গত ২৭ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে। ১০ লাখ থেকে আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখের বেশি হয়েছে।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ১২ হাজার ১৫১। এর মধ্যে মারা গেছে ৭৬ হাজার ৬৮৮ জন।

করোনার ভয়াবহতা অস্বীকার করে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় বোলসোনারো সরকারকে দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা। স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই লকডাউনে শিথিলতা আনায় দেশজুড়ে করোনা আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে শীর্ষে অবস্থান করছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির ৫০টি অঙ্গরাজ্যেই করোনা হানা দিয়েছে।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশে প্রথম করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। তারও অনেক পরে ব্রাজিলে করোনা শনাক্ত হয়। কিন্তু কঠোর পদক্ষেপের অভাবে দেশটি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। আক্রান্ত ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ব্রাজিল।

এদিকে, ২য় বারের পরীক্ষাতেও করোনা পজিটিভ এসেছে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারোর। এই প্রেসিডেন্ট বলছেন, তিনি এখনও ম্যালেরিয়ার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন খাচ্ছেন।

অনেক দেশই ইতোমধ্যে করোনার চিকিৎসায় এই ওষুধটি ব্যবহার করা শুরু করেছে। তবে বিজ্ঞানীদের মধ্যে এ নিয়ে বিতর্ক রয়েছে এবং এই ওষুধ করোনার চিকিৎসায় কার্যকর কিনা আনুষ্ঠানিকভাবে এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

বুধবার দ্বিতীয়বার করোনার পরীক্ষা করিয়েছেন বোলসোনারো। এরপরেই জানা যায় যে, তিনি এখনও করোনা থেকে সেরে ওঠেননি। তারপরই সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করেন বোলসোনারো। সেখানেই হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের পক্ষে আবারও সাফাই গেয়েছেন তিনি।

বোলসোনারো বলেন, আমি প্রথম থেকেই চিকিৎসকের পরামর্শে হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন খাচ্ছি। আমি যেদিন থেকে খাচ্ছি তার পরদিন থেকেই ভালো অনুভব করছি। এটা কাকতালীয় হতে পারে আবার নাও হতে পারে। তবে এটা আমার ক্ষেত্রে কাজ করছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •