ইমাম খাইর :
উখিয়ার পালংখালীর ১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার নুরুল আবছার চৌধুরীসহ দুইজনকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

অপরজনের নাম নুরুল আলম চৌধুরী (৫১)। তিনি ২ নং ওয়ার্ডের বালুখালী পুর্বপাড়ার মৃত ইসলাম মিয়ার ছেলে ও উখিয়া কমিউনিটি পুলিশের কোষাধ্যক্ষ।

তাদের কাছ থেকে ১০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে বলে র‌্যাব জানিয়েছে।

সোমবার (১৩ জুলাই) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে অভিযান চালানো হয়। নুরুল আবছার চৌধুরী পালংখালীর প্যানেল চেয়ারম্যান ও বালুুুুুুখালী পুর্বপাড়ার মৃত নজির আহম্মদ চৌধুরীর ছেলে।

র‌্যাবের সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, নুরুল আবছার চৌধুরীর বসতঘরের সামনে মাদক বিক্রয়ের সংবাদে অভিযান চালানো হয়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় দুইজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, এককালের ‘জিরো’ নুরুল আবছার চৌধুরী ইয়াবার সুবাদে এখন কোটি টাকার মালিক। গড়েছেন গাড়ি বাড়ি। তার নাম-বেনামে রয়েছে বিভিন্ন জায়গায় সহায়-সম্পদ ও দোকানপাট। নুরুল আবছারের সম্পদগুলোর উৎস তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

নুরুল আবছার চৌধুরী ও নুরুল আলম চৌধুরী রাজনৈতিক প্রভাব বিস্তার করে নিরাপদে মাদক ব্যবসা চালিয়েছেন। যার সুবাদে তারা কোটিপতির কাতারে। তাদের রয়েছে শক্তিশালী সিন্ডকেট। বিশেষ করে ২০১৮ সালের ২৫ আগষ্ট রোহিঙ্গা আগমণের পরে নুরুল আবছার চৌধুরীর ভাগ্য বদলে যায়। রোহিঙ্গাদের নিয়ে তার সিন্ডিকেট। বাংলাদেশের ওপারেও রয়েছে তার হাত। এমনটি তথ্য নির্ভরযোগ্য সুত্রের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •