১২ জুলাই ২০২০ ইং কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার স্থানীয় অনলাইন নিউজ “ টেকনাফ একাত্তর ডট কমে প্রকাশিত “ হ্নীলার জমজমাট ইয়াবা সিন্ডিকেট : ধরাছোঁয়ার বাইরে” শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে। সংবাদে টেকনাফে আগের মত ইয়াবা কারবারিদের মাদক ব্যবসা নতুন করে জমজমাট ও ইয়াবা সিন্ডিকেটের মধ্যে বর্তমানে বেপরোয়া হচ্ছে উল্লেখ্য করে বলা হয়েছে যে, হ্নীলার ইয়াবা জোন হিসেবে পরিচিত লেদা এলাকার পূর্ব লেদা লামার পাড়ার আমি জয়নাল, আমার দুই মামা লেদা লামার পাড়ার বসতবাসকারী মৌলভী আইয়ুব ও হামিদ। সংবাদে আরো মনগড়া উল্লেখ্য করেন যে, সিন্ডিকেটের লেদা সীমান্ত তীরবর্তী নাফনদী দিয়ে ইয়াবা ও স্বর্ণ পাচার করে বলতে গেলে প্রকাশ্য। আমরা নাকি প্রশাসনের হাতে এখনো ধরাছোয়ার বাইরে। এসব মাদক ব্যবসার সাথে আমরা জড়িত বলে মিথ্যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করে এই সম্পাদক বিহীন অনলাইন নিউজ একাত্তর ডট কমে। মূলত আমরা এলাকায় আমাদের পরিবারের একজনও মাদক কিংবা পতিতা ব্যবসার সাথে জড়িত নই। এমন একটি সুন্দর সমাজের মাঝখানে যদি কেউ বলে আমিও আমার দুই মামা মাদক ব্যবসা সাথে জড়িত তবে মনে করবো যারা মিথ্যা সংবাদ দেয় তারা হয়তো পাগল। একই সাথে এলাকায় আমার পরিবারের সম্মানহানী করতে উঠেপড়ে লেগেছে এলাকার কিছু কুচক্র মহল।
আর সংবাদে বলা হয়েছে আমি ও আমার দুই মামা লেদা সীমান্ত তীরবর্তী নাফনদী দিয়ে ইয়াবা ও স্বর্ণ পাচারে জড়িত। প্রশাসনসহ সবাই তদন্ত করে দেখেন আমি একজন অতি সাধারণ কর্মজীবী ছেলে। আমার মামা ও একজন মৌলভী অন্য কারো সাথে জড়িয়ে যেভাবে আমাদের মিথ্যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশিত করেছে তা খুবই দুঃখজনক ও মানহানিকর। কারন আমাদের পরিবারের ঐতিহ্য আছে ও সামাজিকভাবে সম্মান রয়েছে। পাশাপাশি আমি লেদা এলাকায় সম্মানের সহিত দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছি। মূলত এই নিউজে আমাকে অপরাধী বানিয়ে সমাজের গুন্যমান্য ব্যাক্তিদের চোখে অপরাধ হিসেবে গড়ে তোলতে চাই একটি চক্র। সুতারাং এই মিথ্যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট সংবাদের আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি ভবিষ্যতে এই রকম উদ্দেশ্যমূলক সংবাদ পরিবেশন থেকে বিরত থাকার জন্য সাংবাদিক ভাইদের অনুরোধ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারি
মোঃ জয়নাল, মৌলভী আইয়ুব ও হামিদ।
লেদা টেকনাফ উপজেলা কক্সবাজার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •