প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

রেড জোন চিহ্নিত কক্সবাজারে করোনার এই মহামারিতে এমপিওভুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলনে করেছে এমপিওভুক্ত কলেজের ননএমপিও অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকরা।

আজ শনিবার ১১ জুলাই বাংলাদেশ বেসরকারি কলেজ অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ফোরামের নেতারা বলেন সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় এমপিওভুক্ত কলেজে চাকরি করেও অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষক ও কর্চারীরা এমপিওভুক্ত না হওয়ায় সরকারি সুবিধা পাচ্ছেন না। ফোরামের দাবী আগামী ১৩ জুলাই ২০২০ইং জনবল কাঠামো সংশোধনীর মিটিংয়ের সিদ্ধান্তে  জনবল কাঠামোতে অনার্স-মাস্টার্স স্তরের শিক্ষকদের অন্তর্ভুক্ত করে এমপিওভুক্তির দাবি জানান।

তারা বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুযায়ী প্রতিষ্ঠান থেকে শতভাগ বেতন দেওয়ার নির্দেশনা থাকলেও তা মানা হয় না। দিলেও নিয়মিত বেতন দেয়না। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে বিগত ২৮ বছরে প্রায় ৪০ লাখ শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা নিয়ে বিসিএস সহ বিভিন্ন সেক্টরে কর্মে যোগদান করেছেন। অথচ শিক্ষকরা মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। “আর এই রকম অমানবিক নজীর পৃথিবীর কোথাও নেই”!

“ইতিমধ্যেই অনার্স-মাস্টার্স শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির উদ্যোগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী,মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী,জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মান্যবর ভিসি,শিক্ষক নেতা  অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজুসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ফোরামের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়”

ফোরামের কক্সবাজার জেলা সভাপতি আবদুল মালেক কাজলের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় সভাপতি নুরুল আবছার সিকদার, জাহাঙ্গীর আলম বাবর, আরিফুল ইসলাম,তছলিমা খানম,মর্জিনা আরা বেগম,জসিম উদ্দিন চৌধুরী,উজ্জল কান্তি দেব,নজরুল ইসলাম,আযম কুতুবী,জসিম উদ্দিন,আবদুল আজিজ, নুর মোহাম্মদ, ক্য খিং রাখাইন।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর আওতায় বিভিন্ন জেলার মত কক্সবাজার জেলাও এই সংবাদ সম্মেলন করা হয়। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে কেন্দ্রীয় সভাপতি নেকবর হোসাইন, মোঃ মেহরাব আলী, মোঃ সাইফুল ইসলাম, মোঃ সাদিকুর রহমান, মোঃ মোস্তফা কামাল, জয়নাল আবেদীন সোহেল, মোখলেসুর রহমান মনি,সৈয়দ কামরুল হাসান লিপু,মোঃ হারুনর রশিদ,সুকুমল সেন,মনিরুজ্জামান মোড়লসহ দেশের সকল শিক্ষক নেতাদের ধন্যবাদ জানানো হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •